মহেশপুরে মৃত ছোট ভাইয়ের জমি ভাগ  বাটোয়ারা নিয়ে ভাবিকে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক,মহেশপুর : মৃত ছোট ভায়ের জমির ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে বিরোধে মেঝোভাবি নাছিমা খাতুনকে (৫০) পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহত নাছিমা খাতুনের দেবর ইদ্রিস আলী (৪৮),জাকারিয়া ইসলাম (৫০) ও জাকারিয়া ইসলামের স্ত্রী চামেলী খাতুনকে (৪০) আটক করেছে।

এঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার মান্দারবাড়ীয়া ইউনিয়নের কমলাপুর গ্রামে। পুলিশ রাতে লাশ উদ্ধার করে ঝিনাইদহ মর্গে প্রেরণ করেছে।

এলাকাবাসী জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা থেকেই এক বছর পূর্বে মৃত আজাদের জমিজমা নিয়ে ভাই ও ভাবিদের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। ঝগড়ার এক পর্যায়ে বাড়ীর ভাই-ভাইতে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় নাছিমা খাতুন গুরুতর ভাবে আহত হয়। পরে আহত অবস্থায় তাকে যশোর নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয়।

নিহত নাছিমা খাতুনের ছেলে জাহিদুল ইসলাম জানান, আমার ছোট চাচার জমি নিয়ে চাচারা নিজেদের মধ্যে মারামারি শুরু করে। এর মধ্যে আমার মাকে মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করার কারণে আমার মা মারা গেছে।

মহেশপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, কমলাপুর গ্রামে জমি নিয়ে ভাই ও ভাবিদের মারামারির মধ্যে পরে আহত নাছিমা খাতুনের মৃত্যু হয়েছে। আমরা নিহত নাছিমা খাতুনের লাশ উদ্ধার করে ঝিনাইদহ মর্গে পাঠিয়েছি।

এ ঘটনায় নিহত নাছিমা খাতুনের স্বামী আব্দুল লতিফ গতকাল শনিবার সকালে বাদী হয়ে ভাই ও ভাবিদেরকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।