যশোরে ব্যবসায়ীদের অনশন অব্যাহত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভারতীয় ভিএইচ গ্রুপের উত্তরা ফুডস অ্যান্ড ফিডসের নিকট পাওনা অন্তত ১৬ কোটি টাকা পরিশোধের দাবিতে যশোরে অনশন কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছেন দেশের পুঁজিহারা ঋণগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা। শনিবারও রামকৃষ্ণ আশ্রম মোড়ে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটির অফিসের মধ্যে এ কর্মসূচি পালন করেন তারা।

কর্মসূচি থেকে দেশবন্ধু গ্রুপের রিকভারি ব্যবস্থাপক মো: জামিল হোসেন বলেন, ভিএইচ গ্রুপের প্রধান নির্বাহী চিরঞ্জিত সিং আনন্দ দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন সময়ে মোবাইল ফোন ও ইমেইলের মাধ্যমে পাওনা টাকা পরিশোধ করবেন বলে কালক্ষেপণ করে আসছেন। সর্বশেষ শনিবার ইমেইলের মাধ্যমে জানান যে, আগামী চার মাসের মধ্যে তাদের দু’টি ফিড মিল বিক্রি করে দেশবন্ধু পলিমারসহ ৭০টি প্রতিষ্ঠানের বকেয়া টাকা পরিশোধ করবেন। কিন্তু তার এ আশ্বাসে আমরা এবং অনশনরতরা বিশ্বাস রাখতে পারছে না। ভিএইচ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বি.ভেনক্যাশ রাওয়ের সাথে শনিবার পাওনাদারদের ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলার নির্ধারিত সময় থাকলেও তিনি তা করেননি। যদি ব্যবস্থাপনা পরিচালক লিখিত আশ্বাস দেন তাহলে অনশন প্রত্যাহার করা হবে।

উল্লেখ্য ভারতীয় ভিএইচ গ্রুপের উত্তরা ফুডস অ্যান্ড ফিডসের প্রতারণায় দেশের প্রায় ৭০টি কাঁচামাল সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের পথে বসার অভিযোগ উঠেছে। বিগত ৪-৫ বছর ধরে প্রতিষ্ঠানগুলোর পাওনা ১৬ কোটি টাকা পরিশোধ নিয়ে টালবাহানা চলছে। টাকা পরিশোধে কয়েক দফা সময় নিলেও দেয়া হয়নি একটি টাকাও। বরং অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানটি তাদের যশোরে থাকা দুটি কারখানার একটি ভাড়া এবং অপরটির কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে।

পাওনা পরিশোধে নানা টালবাহানা করায়  বাধ্য হয়ে ২৪টি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সম্প্রতি প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- দেশবন্ধু পলিমার লিমিটেড, এগ্রো কনসার্ন, তুর কর্পোরেশন, সততা ট্রেডার্স, যুথি ট্রেডার্স, বিএস এগ্রো ট্রেডিং, পিকে এন্টারপ্রাইজ, কাজী এগ্রো লিমিটেড, ইনোভেট বিডি, বিসমিলাহ ট্রেডার্স, এপিএল, নিউট্রিভেট লিমিটেড, জেএনএস টেকনোলজি, নিউ পাবনা ট্রেডিং, ইয়াকিন পলিমার লিমিটেড, মেসার্স খান এন্টারপ্রাইজ, সেঞ্চরি এগ্রো লিমিটেড, ইয়ন গ্রুপ, ভৈরব এন্টারপ্রাইজ, সানশাইন এগ্রো, মেসার্স মা খোদেজা ট্রেডার্স, মাহিন এগ্রো, এম্পেল এগ্রো টোটাল কার্গো ম্যানেজমেন্ট ও সিগমা বাংলাদেশ। কিন্তু অদ্যবধি পাওনা পরিশোধে ভারতের প্রতিষ্ঠানটি আন্তরিক নয়।