যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে বন্দি  কিশোরের আত্মহত্যার চেষ্টা

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে বন্দি কিশোরের আত্মহত্যার চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর পুলেরহাট শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে সাকিব (১৭) নামে এক বন্দি আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। তাকে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সাকিব খুলনা জেলার সোনাডাঙ্গার মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে। একটি হত্যা মামলায় তাকে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে সাকিব শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের রেজিস্ট্রার খাতায় ভর্তির সময় উল্লেখ করা হয় রাত ১০ টা ৫ মিনিট। শুক্রবার ১৭ অক্টোবর সকাল ১০ টা ১০ মিনিটে তাকে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে নিয়ে যাওয়া হয়।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে সুপার জাকির হোসেন জানান, সাকিব ও তার পিতা মোজাম্মেল হোসেনের সাথে কথা বলে তিনি জেনেছেন মিথ্যা মামলায় তাকে ফাঁসানোর কারণে হতাশা ও ক্ষোভে সাকিব শুক্রবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৯ টার দিকে  শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সাকিব যে ঘরে থাকে সেই ঘরের বিছানার চাদর সিলিং ফ্যানের সাথে বেঁধে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। এ সময় ঘরের অন্য বন্দিরা কেউ বাথরুমে ছিলো। কেউ টিভি দেখছিলো। ঘরে কেউ না থাকার কারণে এই সুযোগ সাকিব আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। ঘটনার সাথে সাথে রুমে অন্য বন্দিরা চলে আসায় সাকিব বেঁচে যায়। তারা এসে সাকিবকে উদ্ধার করে আমাদের খবর দেয়। আমরা সাকিবকে ওই সময় হাসপাতালে ভর্তি করি।

জাকির হোসেন আরো জানান, সাকিব একটি হত্যা মামলায় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে আসে। বর্তমানে সাকিব সুস্থ। তার কোনো সমস্যা নেই।