সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর খুলনা শিল্পকলা একাডেমি পরিদর্শন

খুলনা প্রতিনিধি : নির্মাণাধীন খুলনা শিল্পকলা একাডেমির নিরাপত্তা নিশ্চিতে এক সপ্তাহের মধ্যে নিরাপত্তারক্ষীর ব্যবস্থা করা হবে। নির্মাণাধীন ভবনে লিফ্ট ও সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা থাকবে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ বুধবার দুপুরে নির্মাণাধীন খুলনা শিল্পকলা একাডেমি পরিদর্শন শেষে স্থানীয় সাংস্কৃতিক কর্মী ও গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে এ সকল কথা বলেন। খুলনার সাংস্কৃতিক কর্মীদের সকল দাবির সাথে একমত পোষণ করে প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, শিল্পকলা একাডেমির অডিটোরিয়ামে অধিক সংখ্যক মাইক্রোফোন ও কার্যকর অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা যুক্ত করা হবে।জেলা কালচারাল অফিসার সুজিত কুমার সাহার সঞ্চালনায় মতবিনিময় অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক কর্মীদের পক্ষে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ, সাংবাদিক মকবুল হোসেন মিন্টু, মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর কবীর, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মিনা মিজানুর রহমান, সাইদুর রহমান সাইদ ও হুমায়ুন কবীর ববি বক্তৃতা করেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জিয়াউর রহমান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। এর আগে সকালে প্রতিমন্ত্রী খুলনায় অবস্থিত ১৯৭১: গণহত্যা নির্যাতন আর্কাইভ জাদুঘর এবং গণহত্যা নির্যাতন ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষণা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। পরে প্রতিমন্ত্রী ১৯৭১: গণহত্যা নির্যাতন আর্কাইভ জাদুঘর ভবন নির্মাণের পাইলিং কাজের উদ্বোধন করেন ও মোনাজাতে অংশ নেন।  উদ্বোধন ও পরিদর্শনকালে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, ১৯৭১: গণহত্যা নির্যাতন আকার্ইভ জাদুঘর ট্রাস্টের সভাপতি অধ্যাপক মুনতাসীর মামুনসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।