যশোরে গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টায় ছুরিকাঘাত মামলায় অভিযুক্ত আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর সদর উপজেলার হালসা গ্রামের এক গৃহবধূকে (২৫) ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ছুরিকাঘাতে জখম করার অভিযোগে কোতয়ালি থানায় দায়ের করা মামলার আসামি শাহ আলমকে আটক করা হয়েছে। শাহ আলম ওই গ্রামের মৃত নফল দফাদারের ছেলে। এর আগে শাহ আলমের বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় মামলা করেন ওই গৃহবধূ।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, আসামি শাহ আলম বিভিন্ন সময় তাকে কুপ্রস্তাব দিতো। কিন্তু তিনি রাজি না হওয়ায় তাকে নানাভাবে হুমকি দিতো। গত ১৯ অক্টোবর রাতে তার স্বামী বাড়িতে ছিলো না। এ সময় শাহ আলম রাত পৌনে ৮টার দিকে তার ঘরে ঢোকে। সে সময় তিনি (গৃহবধূ) মশারি টাঙাছিলেন। শাহ আলম পেছন দিকে থেকে এসে তাকে জাপটে ধরে এবং খাটের ওপর ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তিনি চিৎকার দিতে চাইলে শাহ আলম একটি ছুরি বের করে তার পেটে আঘাত করে। এ সময় তার শ্বাশুড়িসহ অন্যারা এগিয়ে আসলে শাহ আলম পালিয়ে যায়। পরে তিনি যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়ে কিছুটা সুস্থ হয়ে কোতয়ালি থানায় মামলা করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালি থানার এসআই ওহেদুজ্জামান জানিয়েছেন, আসামি শাহ আলমকে গত বুধবার আটক করে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।