যশোরে সন্ত্রাসী ভাইপো রাকিব কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে চাঁদাবাজি ও হত্যাচেষ্টা মামলার চার্জশিষ্টভুক্ত আসামি সন্ত্রাসী ভাইপো রাকিব আদালতে আত্মসমর্পণ করেছে। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামির জামিন আবেদনের শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। ভাইপো রাকিব শহরের শংকরপুর আলতাফ মোড় এলাকার তৌহিদ কাজীর ছেলে।

মামলায় অভিযোগে জানা গেছে, চাঁচড়া রায়পাড়ার মশিয়ার রহমান খোকন ঢাকার ঈগলু আইসক্রিম কোম্পানি পণ্য ঝিকরগাছায় বিক্রির জন্য অনুমতি নেন। এর মধ্যে আসামি মাহাবুব নিজে ঝিকরগাছায় পণ্য বিক্রি শুরু করে। বিষয়টি খোকন কোম্পানিকে অবহিত করেন। এর জের ধরে গত ৫ সেপ্টেম্বর  দুপুরে আসামিরা বাড়িতে এসে ছেলে জুয়েলকে খুঁজতে থাকে। একই সাথে তার কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা না পেয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় শংকরপুর এলাকায় জুয়েল ও তার বন্ধু হাসানকে পেয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো ছুরি দিয়ে জুয়েলের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করে। এ সময় পকেটে থাকা নগদ টাকাও ছিনিয়ে নেয়। এর মধ্যে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে আসামিরা পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে চলতি বছরের ৬ সেপ্টেম্বর চাঁচড়া রায়পাড়ার মশিয়ার রহমান খোকনের স্ত্রী ফরিদা বেগম বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে আটক আসামিদের দেয়া তথ্য স্বাক্ষীদের বক্তব্যে ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় ওই ৭ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মাসুদুর রহমান।  চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামি ভাইপো রাকিব রোববার আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। বিচারক জামিন আবেদনের শুনানি জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।