এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যানসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

স্পন্দন নিউজ ডেস্ক : আরব বাংলাদেশ (এবি) ব্যাংকের অফশোর ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে আরব আমিরাত (ইউএই) ও সিঙ্গাপুরের তিনটি প্রতিষ্ঠানের নামে ২৩৬ কোটি ৮ লাখ টাকা পাচার এবং আত্মসাতের অভিযোগে ব্যাংকটির সাবেক এক চেয়ারম্যানসহ শীর্ষ ২৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পৃথক তিনটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান ও ৯ পরিচালকসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ পৃথক তিনটি মামলা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। দুদকের উপ-পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম ও সহকারী পরিচালক নারগিস সুলতানা বাদী হয়ে এসব মামলা করেন।

প্রথম মামলায় ১৬০ কোটি ৮০ লাখ টাকা, দ্বিতীয় মামলায় ৬০ কোটি ৪০ লাখ টাকা এবং তৃতীয় মামলায় ১৪ কোটি ৮৮ লাখ টাকা পাচার ও আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। আসামিরা অফশোর ব্যাংকিংয়ের সুযোগ নিয়ে এলসির বিপরীতে ২৩৬ কোটি ৮ লাখ টাকা পাচার করেছেন বলে এজাহার থেকে জানা যায়।

এজাহারগুলোতে বলা হয়,‘আসামিরা প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে পরস্পরের সহায়তায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে ঋণ নেয়ার নামে মিথ্যা তথ্য দিয়ে ব্যাংকের টাকা বিদেশে পাচার করে আত্মসাতসহ উক্ত পরিমাণ অর্থের স্থানান্তর, হস্তান্তর ও রূপান্তরের মাধ্যমে অবস্থান গোপন করে দণ্ডবিধির ৪০৯/১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারা এবং মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২ এর ৪ (২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন।’

আসামিরা হলেন- এবি ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান এম ওয়াহিদুল হক, ব্যাংকটির পরিচালক ফিরোজ আহমেদ, সাবেক পরিচালক এম এ আউয়াল, ফাহিম উল হক, ড. মো. ইমতিয়াজ হোসেন, সৈয়দ আফজাল হাসান উদ্দিন, শিশির রঞ্জন বোস, বি বি সাহা রায়, জাকিয়া এস আর খান ও মো. মেজবাউল হক, ব্যাংকের ডিএমডি অ্যান্ড হেড অব অপারেশন সাজ্জাদ হোসেন, সাবেক ইভিপি অ্যান্ড হেড অব আইসিসিডি মো. শাহজাহান, ইভিপি অ্যান্ড হেড অব আইসিসিডি মো. আমিনুর রহমান, সাবেক ইভিপি সরফুদ্দিন আহমেদ, এবি ব্যাংক লিমিটেডের ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. শাহজাহান, সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার আরিফ নেওয়াজ, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. সালাহ উদ্দিন, অ্যাসিসটেন্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট কাজী আশিকুর রহমান, সাবেক ইভিপি কাজী নাসিম আহমেদ, সাবেক এসইভিপি ও হেড অব বিজনেস আবু হেনা মোস্তফা কামাল, সাবেক এসইভিপি ও হেড অব বিজনেস সালমা আক্তার, সাবেক ডিএমডি ও হেড অব ক্রেডিট কমিটি মশিউর রহমান, সাবেক এমডি ও প্রেসিডেন্ট অব ক্রেডিট কমিটি শামীম আহমেদ চৌধুরী এবং ব্যবসায়ী এ এন এম তায়েবু রশীদ, সাবেক এভিপি পানেট চক্রবর্তী।