বালি পাউবোর, বিক্রি করছে অসাধু চক্র

মিরাজুল কবীর টিটো : ড্রেজারের সাহায্যে যশোর ভৈরব নদ থেকে বালি তুলছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। উত্তোলিত বালি অনুমতি ছাড়াই বিক্রি করছেন একটি চক্র। কয়েকজন রাজনৈতিক নেতার নাম ভাঙিয়ে চক্রটি  তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকা ট্রাক দরে বিক্রি করছে। টেন্ডারের জন্য মজুদ বালি ট্রাক ভরে বিক্রি হলেও পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে খোঁজ নেয়া হবে।

ভৈরব নদের খননের পরিবেশ সৃষ্টি করতে যশোর শহরের ঢাকা রোড ব্রিজ থেকে বিরামপুর হয়ে বাহাদুর পর্যন্ত আড়াই কিলোমিটারে ১৫টি ড্রেজার মেশিন স্থাপন করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড । এসব মেশিন দিয়ে বালি উত্তালন করছে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার। জমে থাকা পানির কারণে ভৈরব নদে স্কেভেটর দিয়ে খনন করতে পারছে না পানি উন্নয়ন বোর্ড যে কারণে ড্রেজারের সাহায্যে বালি তুলে খননের পরিবেশ তৈরি করছে। ড্রেজারে উত্তোলিত বালি মজুদ করা হচ্ছে টেন্ডারের মাধ্যমে বিক্রি করার জন্য। কিন্ত টেন্ডার হওয়ার আগেই উপশহর সারথী মিলের পেছন থেকে বালি বিক্রি করছে ওই চক্রটি। রাতের আধারে ট্রাক প্রতি বালি ৩ হাজার থেকে ৫ হাজার টাকায় বিক্রি করেছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।  শ’শ’ ট্রাক বালি ইতোমধ্যে বিক্রি করে ফেলেছে। অনুমতির বিষয়ে কেউ জিজ্ঞাসা করলেই স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী ওই চক্রটি কয়েক রাজনৈতিক নেতার নাম ব্যবহার করছেন। ফলে কেউ কোনো প্রতিবাদ করতে সাহস করছে না। উপরন্ত যাদের এটি দেখার কথা সেই পাউবোও কোনো উচ্চবাচ্য করছে না। ফলে অবৈধ বালি বিক্রি চলছেই।

পানি উন্নয়ন বোর্ডে নির্বাহী প্রকৌশলী তাওহীদুল ইসলাম জানান, ভৈরব নদ থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে উত্তোলন করা বালি টেন্ডারের মাধ্যমে বিক্রি করা হবে। এ বালি যদি কোনো অসাধু ব্যবসায়ী বিক্রি করে তাহলে খোঁজ নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।