ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ● ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

অভয়নগরে সরকারি রাস্তা নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ!

Published : Wednesday 17-February-2021 21:54:28 pm
এখন সময়: রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ০৫:৫০:২৫ am

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি : অভয়নগরে এলজিইডি’র একটি রাস্তার নির্মাণ কাজে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওয়ার্ক অর্ডারে ১২ ফুট চওড়া করার কথা থাকলেও করা হচ্ছে ১০ ফুট। উপজেলা প্রকৌশল অফিস বলছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের ভুল। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বলছে প্রকৌশলী যেভাবে বলেছেন সেভাবে কাজ করছি। 

জানা গেছে, উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর চলতি বছরে এক কোটি তিন লাখ টাকা ব্যয়ে উপজেলার শ্রীধরপুর ইউনিয়নের বনগ্রাম থেকে কামকুল বাজার পর্যন্ত রাস্তা নির্মাণের দরপত্র আহবান করে। দরপত্রে সানভিক এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ পায়। কাজ শুরুর পর ব্যাপক অনিয়মের কারণে কাজে বন্ধ করে দেয় এলাকাবাসী। দরপত্র মোতাবেক কাজ করার আশ্বাস দিলে পুনরায় কাজ করার সুযোগ দেয় এলাকাবাসী। কয়েকদিন ঠিকঠাক কাজ করলেও এবার গরমিল শুরু করে সাব ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স সরদার এন্টারপ্রাইজ।   

সরেজমিনে দেখা যায়, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকরা রাস্তা নির্মাণের জন্য খোড়াখুড়ির কাজ করছে। ১২ ফুটের পরিবর্তে তারা ১০ ফুট খুড়ছে। সাববেজ ও ম্যাকাডম ২২ ইঞ্চি করার কথা থাকলেও তা করা হচ্ছে না।

স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আসাদুর রহমান সরদার জানান, আমি ফিতা দিয়ে রাস্তা মেপে ১০ ফুট পেয়েছি। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সানভিক এন্টারপ্রাইজের পাওয়া কাজ সাব ঠিকাদার সরদার এন্টারপ্রাইজ করছে। ইমরান হোসেন, আনছার মোল্যা, ফিরোজ মোল্যা, নবুয়াত মিনা, রবিউল মোল্যাসহ এলাকাবাসীর অভিযোগ নি¤œমানের সামগ্রী ব্যবহার ও অনিয়মের বিষয় উপজেলা প্রকৌশল অফিসকে জানালে তারা ব্যবস্থা না নেয়ার কারণে রাস্তার কাজ বন্ধ করা হয়েছিল। ঘটনাস্থলে উপস্থিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সহকারী আবু সাঈদ জানান, আমি এ কাজের সিডিউল দেখিনি। উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার অফিসের মনজুরুল হক স্যার যেভাবে বলেছেন আমি সেভাবে কাজ করছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপসহকারী প্রকৌশলী মনজুরুল হক জানান, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ভুল করেছে। আমারও বোঝার ভুল হয়েছে। ভেবেছিলাম ইউনিয়ন পরিষদের রাস্তা। পরে দেখি উপজেলা পরিষদের রাস্তা। নিয়ম আছে উপজেলা পরিষদের রাস্তা ১২ ফুট চওড়া হতে হবে। আমি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে ওয়ার্ক ওয়ার্ডার মোতাবেক কাজ করার নির্দেশ দিয়েছি। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ্ ফরিদ জাহাঙ্গীর জানান, পরিষদের রাস্তার কাজে কোনো অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সঠিকভাবে কাজ করার জন্য উপজেলা প্রকৌশল অফিসকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।