ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ● ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

আজ দু’বাংলার মোহনায় পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

Published : Saturday 20-February-2021 22:33:08 pm
এখন সময়: রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ০৫:৫৮:৫৭ am

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল : “তুলির আঁচড়ে আল্পনা আর কাঠ-পেরেকের ঠকঠকানি শেষ” আজ দু’বাংলার মোহনায় পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ভারতের পেট্রাপোল আর বাংলাদেশের বেনাপোল সীমান্তের শূন্যরেখায় সকাল ১০ টায় অস্থায়ী শহিদ মিনারে যৌথভাবে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন দু’দেশের বাংলা ভাষা প্রেমীরা।

যৌথ এ ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদনে বাংলাদেশের পক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্রাচার্য্য আর ভারতের পক্ষে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

শনিবার বিকেলে সরেজমিনে সীমান্তের সকল প্রস্তুতির খোঁজখবর ও দিকনির্দেশনামূলক তদারকি করেন যশোর-১ (শার্শা) আসনের এমপি আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন।

এসময় সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন সংবাদকর্মীদের বলেন, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১  ফেব্রুয়ারি উদযাপন উপলক্ষে গত কয়েকদিন যাবত দু’পার বাংলার হস্তশিল্পীরা তুলির আঁচড়ে আল্পনা আর কাঠ-পেরেকের নিবিড় সম্পর্কের কারুকাজ শেষ করেছেন। একুশে ফেব্রুয়ারি প্রথম প্রহরে দু’পার বাংলার সীমান্তরেখায় বাঁশিয়ালের বাঁশি আর সারেন্দার তালে বাংলা ভাষাভাষীদের কন্ঠে গেয়ে উঠবে “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি”।

সীমান্ত মোহনায়, দু’দেশের একুশ উদযাপন কমিটির আমন্ত্রণে আসা “মায়ের ভাষা বাংলায় কথা বলা” এমপি মন্ত্রীসহ সমাজকর্মীরা একযোগে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন অস্থায়ী শহিদ মিনারে। প্রাণের ভাষা বাংলায় কথা বলা দু’দেশের বাংলা ভাষাভাষীদের হৃদয়ের স্পন্দন প্রকম্পিত হবে এ ২১ উদযাপনে। অনেকে আবার ভাষার আবেগ ঠিক রাখতে না পেরে একে অন্যকে জড়িয়ে ধরবেন, কাঁদবেন অশ্রুসিক্ত নয়নে। যার প্রতিফলন প্রতিবছরই এই প্রাণের মহা মিলনে ঘটে।

তবে, বিশ^ব্যাপী করোকালীন সময় হওয়ায় এবার এপার বাংলায় মঞ্চায়িত হচ্ছেনা কোনো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। নোম্যান্সল্যান্ডে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদনের পরপরই শেষ হবে আমাদের এপারের একুশে উদযাপন। তবে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ওপার বাংলায় একটি মঞ্চ হয়েছে। সেখানে দু’দেশের কবি, সাহিত্যিক, শিল্পী ও বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক-প্রশাসনিক ব্যক্তিদের সমন্বয়ে ঘটবে দু’বাংলার  মিলন মেলা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান ও ২১ উদযাপন কমিটির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, যুগ্মসম্পাদক ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, দৈনিক স্পন্দন পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব আলম লাবলু, বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ এনামুল হক মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নাসির উদ্দিন, সহসভাপতি আলীকদর সাগর, যুগ্মসম্পাদক মহাতাব উদ্দিন, শার্শা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ওহিদুজ্জামান অহিদ, সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ বজলুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রহিম সরদার, সাধারণ সম্পাদক ইকবল হোসেন রাসেল, পৌর যুবলীগের আহবায়ক আহাদুজ্জামান বকুল, জসীম উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুলফিকার আলী মন্টু, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, ছাত্রলীগের সভাপতি মামুন জোয়াদ্দার, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

দু’দেশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত একুশের এ মিলন মেলায় বাংলাদেশের পক্ষে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকছেন যশোর-১ (শার্শা) আসনের এমপি আলহাজ¦ শেখ আফিল উদ্দিন, বেনাপোল কাস্টম হাউসের কমিশনার আজিজুর রহমান, যশোর জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান, ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল সেলিম রেজা, পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়াদ্দার, শার্শা উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা পূলক কুমার মন্ডোল, জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল।

আরো উপস্থিত থাকছেন শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বদরুল আলম খান, বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মামুন খান, ইমিগ্রেশন অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আহসান হাবিব, শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলহাজ¦ সালেহ আহমেদ মিন্টু, বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি আলহাজ শামছুর রহমান, সভাপতি আলহাজ¦ মফিজুর রহমান সজন, সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক লতা, যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আসিফ-উদ-দৌলা অলোক, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মুসা মাহমুদ, দৈনিক স্পন্দন পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব আলম লাবলু, বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ এনামুল হক মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নাসির উদ্দিন, বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ বজলুর রহমান প্রমুখ।

ভারতের পক্ষে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের প্রাক্তন বিধায়ক ও মেন্টর গোপাল শেঠ, উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের সহ সভাপতি শ্রীকৃষ্ণ গোপাল ব্যানার্জী, বনগা লোকসভার প্রাক্তন সংসদ শ্রীমত্তা মমতা ঠাকুর, বনগা দক্ষিণ বিধায়ক শ্রী সুরঞ্জিত বিশ^াষ, গাইঘাটা বিধায়ক শ্রী পুলেন বিহারি রায়, বনগা পৌরসভা ও প্রাক্তন পৌরসভা এবং প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য শ্রীমত্তা কৃষ্ণা রায়, গাইঘাটা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ্রী গোবিন্দ দাস, বনগাঁ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ্রী প্রদীপ বিশ^াস, গাইঘাটা পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ শ্রী ধ্যানেশ গুহ, বনগা পঞ্চয়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ শ্রী সৌমেন দত্ত, ছয়ঘরিয়া প্রাক্তন পরিষদের প্রধাণ প্রসেনজিৎ ঘোষ, দমদম পৌরসভা প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য শ্রীমতি রিংকু দে দত্ত, আকাইপুর প্র: প: প্রধান শ্রী সুভাস সাহা।

ভারতের আরো উপস্থিত থাকবেন সাহিত্যিক শ্রী বিভাস রায় চৌধূরী, সাহিত্যিক শ্রী স্বপন চক্রবর্তী, বনগাঁ জেলা পুলিশ আইপিএস পুলিশ সুপার শ্রী তরণি হালদার, বনগা মহাকুমা শাসক শ্রী প্রেম বিভাস কাঁশারী, বনগাঁ মহকুমা পুলিশ আধিকারি শ্রী অশেষ বিক্রম দস্তিদার, আইআরএস ডেপুটি কমিশনার অব কাস্টম শ্রী শিবসাগর, ১৭৯ বিএন.বিএসএফ অ্যাসিস্ট্যান্ট কোম্পানী কমান্ড্যান্ট শ্রী পারভেস ধনকর, পেট্টাপোল মুখ্য অভিবাসন আধিকারি শ্রী টি.কে বিশ্বাস, ১৫৮ বিএন, বিএসএফ অ্যাসিস্ট্যান্ট কোম্পানী কমান্ড্যান্ট শ্রী সঞ্জয় রাউত, বনগা থানার আইসি শ্রী সূর্য শেখর মন্ডোল, পেট্রাপোল থানা ভারপ্রাপ্ত আধিকারি শ্রী কার্ত্তিক অধিকারি প্রমুখ।