ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ● ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

কপিলমুনিতে একই রাতে ৫ স্থানে চুরি

Published : Wednesday 31-March-2021 21:54:44 pm
এখন সময়: রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ০৬:০২:৪৫ am

জি এম আসলাম হোসেন, কপিলমুনি (খুলনা) : কপিলমুনি বাজারে একই রাতে ইউনিলিভার কোম্পানির পরিবেশক অফিসসহ ৫ জায়গায় দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। চোরেরা কোম্পানির অফিসের ক্যাশ ড্র’র ভেঙে ৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকা ও অন্যান্য জায়গায় রাখা টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে পালিয়ে যায়। মঙ্গলবার রাতে কপিলমুনি সদরের ৫ টি জায়গায় এ ঘটনা ঘটে। থানার ওসি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

কপিলমুনি সদরের সাবেক গ্রামীণ ব্যাংকের সামনে অবস্থিত দ্বিতল ভবনের নীচতলায় ইউনিলিভার কোম্পানির পরিবেশক মেসার্স হাসান ব্রাদার্স এর অফিস। মঙ্গলবার গভীর রাতের কোনো এক সময় সংঘবদ্ধ চোরেরা অফিসের প্রথম গেটের তালা ভেঙে, দ্বিতীয় গেটের তালা ও গ্রীল কেটে অফিসের ভিতরে প্রবেশ করে। এরপর ৩৫ জন সেলস্ ম্যানের ৩৫ টি ক্যাশ ড্রয়ার ভেঙ্গে ফেলে। অফিস ম্যানেজার আক্তারুজ্জামানের ক্যাশ ড্রয়ার ভেঙে ৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এদিকে অফিসের রক্ষিত সিসি ক্যামেরায় একজন উজ্জল ফর্সা, মুখে দাঁড়ি সুদর্শন যুবককে ড্রয়ার ভাঙতে ও টাকা নেয়ার দৃশ্য ক্যামেরায় ধরা পড়ে। তার গায়ে একটি ডোরাকাটা টি শার্ট পরা দেখা যায়। এর আগে চোরেরা স্থানীয় ভদ্র অটো রাইচ মিলের কাঠের দরজা ভেঙে মিলের ভিতর প্রবেশ করে ক্যাশ ড্রয়ার ভেঙে ৬২৫ টাকা নিয়ে যায়। মিলের পাশেই অবস্থিত মায়ের আশির্বাদ বাণিজ্য ভান্ডারে টিনের চালা কেটে ভিতরে প্রবেশ করে ক্যাশ ড্রয়ার ভেঙে ৩ হাজার টাকা নেয় তারা। এছাড়া বাজারের দক্ষিণ পার্শ্বে অবস্থিত রফিকুল বিশ্বাসের বসতঘরের তালা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ার ভেঙে রাখা স্বর্ণের চেইন, একজোড়া কানের দুল নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪০ হাজার টাকা। এ সময় রফিকুল মৎস্য ঘেরে ও তার স্ত্রী পিত্রালয়ে গিয়েছিল বলে জানায় রফিকুল। একইভাবে কাঁকড়া ব্যাবসায়ী সিরাজুলের ক্যাশ ড্রয়ার ভেঙে ১৫ হাজার টাকা নিয়ে যায় চোরেরা। ধারণা করা হচ্ছে ভদ্র অটো রাইচ মিল থেকে নেয়া কাতারি,  ও সেলাইরেন্স এ সব চুরির কাজে ব্যাবহার করেছে চোরেরা। তবে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখাযায় ইউনিলিভার অফিসে রাত ৩ টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত ওই চোর চুরির কাজ সম্পাদন করে। এ বিষয়ে থানা ওসি এজাজ শফি জানান, চুরির এ ঘটনায় থানায় মামলা হবে। এবং চোর যেই হোক তাকে গ্রেফতার করা হবে।