ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর , ২০২১ ● ১১ কার্তিক ১৪২৮

কলারোয়া ফকিরহাট ও মোরেলগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যান হলেন যারা

Published : Monday 20-September-2021 22:13:26 pm
এখন সময়: মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর , ২০২১ ২১:৪৬:৪৭ pm

স্পন্দন ডেস্ক  : সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন, বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও  মোরেলগঞ্জের ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন সোমবার সম্পন্ন হয়েছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

কলারোয়া(সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি জানান, কলারোয়া উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সোমবার বিচ্ছিন্ন কয়েকটি ঘটনা ছাড়া মোটামুটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন  হয়েছে। অবিরাম বৃষ্টি উপক্ষো করে প্রতিটি ইউনিয়নে বিপুল সংখ্যক ভোটার উপস্থিত হন। ৩ নং কয়লা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিক মোল্যা নানা অনিয়ম তুলে ধরে সোমবার সকালে প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। এদিকে ৫ নং কেঁড়াগাছি ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে (১ নং ওয়ার্ড) অনিয়মের কারণে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে জানা গেছে, উপজেলার ১০ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের ৪ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ৬ জন বিজয়ী হয়েছেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের ৪ বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন: ৪ নং লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়নে অধ্যাপক আবুল কালাম, ৬ নং সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নে বেনজির হোসেন হেলাল, ১১ নং দেয়াড়া ইউনিয়নে মাহবুবুর রহমান মফে ও ১২ নং যুগিখালি ইউনিয়নে রবিউল হাসান। স্বতন্ত্র প্রার্থী ৬ বিজয়ীদের মধ্যে ৫ জন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। এরা হলেন: ১ নং জয়নগর ইউনিয়নে বিশাখা সাহা, ২ নং জালালাবাদ ইউনিয়নে মাহফুজুর রহমান নিশান, ৩ নং কয়লা ইউনিয়নে শেখ সোহেল রানা, ৫ নং কেঁড়াগাছি ইউনিয়নে আফজাল হোসেন হাবিল ও ৭ নং চন্দনপুর ইউনিয়নে ডালিম হোসেন। এছাড়া ৯ নং হেলাতলা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন মোয়াজ্জেম হোসেন।

ফকিরহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধি জানান,বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৭জনই আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী নৌকা প্রতিকের জয় হয়েছে। উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রথম ধাপে ৭টি ইউনিয়নে  নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৭টি ইউনিয়নে নৌকা প্রতিক নিয়ে যারা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন ১নং বেতাগা ইউনিয়ন থেকে মো : ইউনুস আলী শেখ, (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত), ২নং লখপুর ইউনিয়ন থেকে এম ডি সেলিম রেজা, ৩নং পিলজংগ ইউনিয়ন থেকে মো. জাহিদুল ইসলাম মোড়ল (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত), ৪নং ফকিরহাট ইউনিয়ন থেকে শিরিনা আক্তার কিসলু (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত), ৫নং বাহিরদিয়া-মানসা ইউনিয়ন থেকে মো: রেজাউল করিম ফকির, ৬নং নলধা-মৌভোগ ইউনিয়ন থেকে সরদার আমিনুর রশিদ মুক্তি (বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত) এবং ৮নং শুভদিয়া ইউনিয়ন থেকে শেখ ফারুকুল ইসলাম ওমর। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: মাসুম বিল্লাহ। 

ফকিরহাটে নির্বাচন সুষ্ঠু, সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে শুভদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী এম এ আওয়াল (আনারস) বেলা ১১টার দিকে ভোট বর্জন করেন বলে তিনি জানান। নির্বাচনে কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরামহীনভাবে উৎসব মূখর পরিবেশে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে পুরুষের পাশাপাশি নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। তবে অনেক কেন্দ্রে বৃষ্টি ও কাঁদার মধ্যে দীর্ঘ সময় লাইনে দাড়িয়ে তাদের মনোনিত প্রার্থীকে ভোট প্রদান করেন।

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি জানান,বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। ১৬ টি ইউনিয়নের মধ্যে ১৪ টি ইউনিয়ন পরিষদে সোমবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। যারা নির্বাচিত হলেন: তেলিগাতী মোর্শেদা আক্তার (নৌকা), পঞ্চকরণ আব্দুর রাজ্জাক মজুমদার (নৌকা), পুটিখালী আব্দুর রাজ্জাক শেখ (নৌকা), দৈবজ্ঞহাটী শামছুল আলম মল্লিক (নৌকা), রামচন্দ্রপুর আব্দুল আলীম (নৌকা), চিংড়াখালী আলী আক্কাস বুলু (নৌকা), হোগলাপাশা মো. শহিদুল ইসলাম  (স্বতন্ত্র), বনগ্রাম রিপন দাস (নৌকা), বলইবুনিয়া শাহ জাহান আলী খান (নৌকা), হোগলাবুনিয়া আকরামুজ্জামান, (নৌকা), বহরবুনিয়া টি এম রিপন (নৌকা), জিউধরা জাহাঙ্গির আলম বাদশা (নৌকা), বারইখালী আব্দুল আউয়াল খান মহারাজ (স্বতন্ত্র), মোরেলগঞ্জ সদর হুমায়ন কবির মোল্ল (নৌকা)।