ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর , ২০২১ ● ১২ আশ্বিন ১৪২৮

ক্ষতিপূরণের দাবিতে নড়াইলে ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

Published : Saturday 29-May-2021 22:30:56 pm
এখন সময়: মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর , ২০২১ ০৩:৪০:১৭ am

নড়াইল পৌর প্রতিনিধি: মাশরাফির হস্তক্ষেপ কামনা করে নড়াইলে ক্ষতিপূরণের দাবিতে তুলারামপুর দোকান মালিক ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সদরের তুলারামপুর ইউনিয়নের নড়াইল-যশোর মহাসড়কের তুলারামপুর বাজারে সামনে এ মানববন্ধন হয়।

ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে বক্তব্য দেন তুলারামপুর বাজার বণিক সমিতির সভাপতি জিল্লুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক রবিউুল ইসলাম, তুলারামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অঙ্গদ কুমার বিশ^াস, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদ খুরশীদ আলম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদ দেলোয়ার হোসেন লিটন, সমাজ সেবক ডা. ইন্দ্রজিত দাস প্রমুখ। এ ছাড়া কামাল হোসেনসহ ক্ষতিগ্রস্ত ১২০ টি দোকানের মালিক  মানববন্ধনে অংংশগ্রহণ করেন।

নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্তজার সাহায্য চেয়ে বক্তারা বলেন, তুলারামপুর বাজারের সামনের ব্রীজ প্রশস্ত করার কারণে আমাদের বাজারের ১২০টির অধিক দোকান অপসারণ করতে চাইলে আমরা সরকারের উন্নয়নের কাজে সহযোগিতা করার জন্যে ভেঙ্গে ফেলতে একেমত হয়ে ভেঙ্গে ফেলি। আমরা আর্থিক ও মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হই।

আমাদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার জন্য সেতু নির্মাণ প্রতিষ্ঠান জাইকার অধীনে ক্রসবর্ডার রোড ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট ও ওসিজি (ওরিয়েন্টাল গ্লোবাল কনসালটেন্ট) এবং বেসরকারী পরামর্শ কেন্দ্র সমাচার যোগাযোগ করে। ক্ষতিগ্রস্থ দোকানদারদের যাচাই করে নামের তালিকা প্রস্তুত করে। তারা সকল দোকানদারদের সোনালী ব্যাংকে আলাদা আলাদা ব্যাংক হিসাব খোলায় এতে করে আরো ২/৩ হাজার টাকা ক্ষতি হয়। কিন্ত দুই বছর ধরে বিলম্ব করাচ্ছে আমাদের ক্ষতিপূরণের টাকা দিচ্ছেনা। এতে করে অনেক দোকানের মালিক বেকার হয়ে পথে পথে ঘুরছে। আর কেউ কেউ নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়লে তাদের দায়ভার কে নেবে। দোকান মালিকরা অতিসত্বর ক্ষতিপূরণের টাকা দাবি করে আরো বলেন, টাকা না পেলে আমরা অনশন করবো এবং তাতে যদি কাজ না হয় তাহলে সড়ক অবরোধ করার হুমকি দেয়া হয়।

সওজ সড়ক বিভাগ নড়াইল হতে জানা যায়, নড়াইল বিভাগাধীন ভাটিয়াপাড়া কালনা লোহাগড়া নড়াইল যশোর (এন-৮০৬) জাতীয় মহাসড়কের ৩২ কিলোমিটারের “ক্রস বর্ডার নেটওয়ার্ক ইমপ্রুভমেন্ট” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় তুলারামপুরের আফরা নদীর উপরে ২০১৯ সালে সেতু প্রশস্ত করণের জন্য নতুন সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হয়। তবে সড়ক বিভাগ নড়াইল জানায়, ক্ষতিপূরণ দেয়ার বিষয়ে কালনা ব্রিজ প্রকল্পের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, দোকান মালিকরা কেন ক্ষতিপূরণের টাকা পাচ্ছেনা তার সুনির্দিষ্ট কারণ আছে। ব্যবসায়ীদের প্রতিনিধিরা আমার কাছে আসলে বিস্তারিত জেনে বিধিসম্মত হলে সড়ক বিভাগের সাথে যোগাযোগ করে চেষ্টা করবো যাতে করে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিপূরণ পায়।