ই-পেপার ফটোগ্যালারি আর্কাইভ রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ● ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

বেনাপোলে মহান স্বাধীনতা দিবস ও স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন

Published : Saturday 27-March-2021 22:35:59 pm
এখন সময়: রবিবার, ১৬ মে , ২০২১ ০৫:২৭:৩৪ am

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল : যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদাত্ত আহবানে ১৯৭১’র মুক্তিযুদ্ধে “ভারত” বাঙালী জাতিকে বন্ধুত্বের দু’হাত বাড়িয়ে দিয়ে বুকের ভিতর জায়গা দিয়েছিলো। অন্ন, বস্ত্র, চিকিৎসা, বাসস্থান, যুদ্ধের প্রশিক্ষণসহ পর্দার অন্তরালে নিজ দেশের দক্ষ সৈন্যবল দিয়ে পাকিস্তানি বাহিনী না হটা পর্যন্ত নি:স্বার্থভাবে আমাদেরকে সহযোগিতা করেছিলো। বঙ্গবন্ধুর দৃঢ় মনোবল-নেতৃত্ব আর ভারতের বন্ধুপ্রতিম সহযোগিতায় মুক্তিকামি নিরস্ত্র বাঙালী সেসময়ে মাত্র ৯ মাসে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জণ করেছিলো। যা বিশে^র ইতিহাসে দূর্লভ। শুক্রবার (২৬ মার্চ) বিকেল ৫টায় দু’দেশের মোহনা বেনাপোল-পেট্রাপোল শুন্যরেখায় মহান স্বাধীনতা দিবস ও স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি।

ভারত-বাংলাদেশের বন্ধুত্বসহ সৌহাদ্য-সম্প্রীতি আরো সুমধূর করার লক্ষ্যে ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের বেনাপোল আইসিপি ক্যাম্পের আয়োজনে অনুষ্ঠিত দু’দেশের বিজিবি-বিএসএফ’র যৌথ মহড়ায় ভিউগল বাজিয়ে দু’দেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন, জাতীয় পতাকা নামানো এবং মনোরম কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান পরিদর্শন করেন তিনি।

বেনাপোল-পেট্রাপোল শুন্যরেখায় অনুষ্ঠিত মহান স্বাধীনতা দিবস ও স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন আরও বলেন, আজ ভারতের ভালোবাসায় ¯িœগ্ধ বঙ্গবন্ধুর সেই লাল সবুজের পতাকা জাতির জনকের কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে পত পত করে উড়ছে। ৭১ পূর্ববর্তী সেই নির্যাতিত-নিপীড়িত-শোষিত-খাদ্যাভাবে দূর্ভিক্ষময় বাঙালী জাতি স্বাধীনতার মাত্র ৫০ বছরে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় উন্নয়নশীল জাতিতে পরিণত হয়েছে। যা অবাক বিষ্ময়ে তাকিয়ে দেখছে বিশ^। আজও ভারতের সহযোগিতা আর বাংলাদেশের উন্নয়ন সহ্য করতে না পেরে ৭১’র পরাজিত শত্রুরা ভারতকে নিয়ে নানা ধরনের অপরাজনীতি সৃষ্টি করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। দেশের ভিতর অরাজকতা সৃষ্টি করে বর্হিবিশে^র কাছে বাঙালী জাতিকে তালেবানি রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিতি করতে চাইছে।

উ অনুষ্ঠানে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র পক্ষে যশোর রিজিয়ন কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সোহ্্রাব হোসেন ভূঞা, খুলনা সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মোহাম্মদ গোলাম মহিউদ্দিন খন্দকার, যশোর ব্যাটালিয়ন (৪৯ বিজিবি)’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোঃ সেলিম রেজা, র‌্যাব-৬ খুলনার অধিনায়ক লেঃ কর্নেল রওশানুল ফিরোজ, ৪৯ বিজিবি’র উপ-অধিনায়ক, ২১ বিজিবি’র উপ-অধিনায়ক