কালিগঞ্জে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী ও শ্বশুর আটক

এখন সময়: বুধবার, ৫ অক্টোবর , ২০২২ ২০:২১:৪৭ pm

কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় শাহিনা রাসুল হাসি (২০) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের সোনাতলা গ্রামের মাহমুদুল হাসানের স্ত্রী ও কালিগঞ্জ রোকেয়া মুনসুর মহিলা কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে সোনাতলা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। এঘটনায় তার স্বামী ও শ্বশুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের শ্বশুর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বীরমুক্তিযোদ্ধা মোবারক হোসেন (৭০) জানান, গত বুধবার রাতে পরিবারের সবাই একসাথে খেয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে সাড়ে ৯ টার সময় বাথরুমের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার পুত্রবধূকে দেখতে পান। পরবর্তীতে এলাকাবাসী থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন যাবত শাহিনা ও মাহমুদুলের মধ্যে পারিবারিক বিরোধ চলছিল। এজন্য তার স্ত্রী পিতার বাড়িতে ছিল। তিন দিন আগে  মাহমুদুল ঢাকা থেকে এমএমসি পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফিরে শ্বশুরবাড়ি থেকে স্ত্রী শাহিনাকে নিয়ে আসে। গত বুধবার রাতে শাহিনার সাথে যৌতুকের টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এসময় মাহমুদুল তার স্ত্রীকে মারধর করে। পরদিন সকালে বাথরুমের আড়ার সাথে তাকে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায়  পাওয়া যায়।

শাহিনাকে তার স্বামী পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে বাথরুমের আড়ার সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলিয়ে রেখেছে দাবি এলাকাবাসীর।

স্বামী মাহমুদুল হাসান বলেন, তার স্ত্রীর মাথার সমস্যা ছিলো। এজন্য সে আত্মহত্যা করেছে। তার সাথে কোনো ঝগড়া হয়নি।

কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হালিমুর রহমান বাবু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী মাহমুদুল হাসান ও শ্বশুর মোবারক হোসেনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে বলে জানান ওসি।