শার্শায় চুরি হওয়া ১১৭ বস্তা চাল উদ্ধার, আটক ১০

এখন সময়: বুধবার, ৭ ডিসেম্বর , ২০২২ ১৫:৩৫:৪৬ pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:  যশোরের শার্শা উপজেলার বুরুজবাগান এলাকার একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে চুরি যাওয়া ১১৭ বস্তা চাল এবং নগদ সোয়া এক লাখ টাকাসহ ১০ জনকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করা হলে এর মধ্যে ইয়াকুব মৃধা ও শফি ড্রাইভার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরমান হোসেন তাদের জবানবন্দি গ্রহণ করেন।

আটকরা হলেন, পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার শৈলাবুনিয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তার মৃধার ছেলে ইয়াকুব মৃধা (৪২), বরগুনার আমতলী উপজেলার হলুদিয়া গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে রুবেল (২৭), ঘোপখালী গ্রামের জয়নালের ছেলে মহসীন (৩১), আরপাঙ্গাশিয়া গ্রামের মৃত লতিফ হাওলাদারের ছেলে ফেরদৌস হাওলাদার (২৮), ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার পিরোজপুর গ্রামের সামসুদ্দীন বিশ্বাসের ছেলে শফিয়ার রহমান শফি ড্রাইভার (৪৫), পাবনার আমিনপুর উপজেলার আমিনপুর বাজার এলাকার মৃত গফুর শেখের ছেলে সেলিম ওরফে ক্যারফা সেলিম (৫৪), মৃত আব্দুস সামাদ সরদারের ছেলে রফিকুল ইসলাম (৪১), চকঘরিয়া গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৪০), চরপাড়া গ্রামের আবু তাহের প্রামাণিকের ছেলে রুবেল প্রামাণিক (৩০) ও হারু প্রামাণিকের ছেলে হযরত প্রামাণিক (৩৫)। 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই শফি আহমেদ রিয়েল জানান, শার্শা উপজেলার যাদবপুর গ্রামের বাসিন্দা মাহাবুব আলম বাবলুর বুরুজবাগান এলাকায় চালের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। গত ১৮ জুলাই তিনি তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তালা দিয়ে চলে যান। পরদিন ভোররাতে খবর পান যে, তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সার্টার খোলা এবং তালা ভাঙা রয়েছে। এ খবর পেয়ে তিনি সেখানে গিয়ে দেখেন, ৩৪০ বস্তা চাল ও নগদ ৬০ হাজার টাকা চুরি হয়ে গেছে। এ ঘটনায়  তিনি শার্শা থানায় একটি মামলা করেন। এরপর ডিবি পুলিশ বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে প্রথমে ইয়াকুব, রুবেল, শফি ড্রাইভার, মহসীন ও ফেরদৌসকে আটক করে। পরে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদে তারা চাল চুরি কথা স্বীকার করেন। এরপর তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গত ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে পাবনার আমিনপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে চুরির সাথে জড়িত অন্যদের আটক এবং ১১৭ বস্তা চাল এবং চোরাই চাল বিক্রির ১ লাখ ১৬ হাজার ২শ’ টাকা উদ্ধার করা হয়।