কেশবপুরে পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু ৩ গরুর !

এখন সময়: বুধবার, ৭ ডিসেম্বর , ২০২২ ১৫:০২:৫৭ pm

সিরাজুল ইসলাম, কেশবপুর  : কেশবপুরে মনোহরনগর গ্রামে অদক্ষ পল্লী পশু চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসার কারণে উন্নত জাতের ৪ লাখ টাকা দামের ৩টি গরুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে । গরুর মালিকরা চিকিৎসকের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েছেন। 
স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে কেশবপুর উপজেলা পাঁজিয়া ইউনিয়নের মনোহরনগর গ্রামের ফজলুর রহমান গাজীর পুত্র জসিমউদ্দীন গাজীর বিদেশি উন্নত প্রীজিয়াম জাতের একটি গাভীর বাচ্চা জন্মগ্রহণ করে ১ সেপ্টেম্বর। গাভীর বাচ্চাটি জন্মের দিন থেকে তাকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছিলেন একই গ্রামের সুধীর মন্ডলের ছেলে পল্লী পশু চিকিৎসক সুধাম মন্ডল। কিন্তু তার অদক্ষতার কারণে ভুল চিকিৎসায় উন্নত জাতের গাভীর বাচ্চাটির মৃত্যু হয়েছে। 
এ ব্যাপারে গাভীর মালিক জসিমউদ্দীন গাজী জানান, অনেক সাধনার পরে তার গাভীর একটি বাচ্চা জন্মগ্রহণ করে। প্রীজিয়াম জাতের গাভীর বাচ্চাটি ভালোই ছিলো। কিন্তু বাচ্চাটি অসুস্থ হলে সুধাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার কারণে বাছুরটির মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও অল্প কয়দিনের ব্যবধানে সুধাম ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার কারণে আরো ২ জনের দুটি বিদেশি উন্নত জাতের গরুর মৃত্যু হয়েছে। সবমিলিয়ে তিন গরুর আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪ লাখ টাকা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। তিনি অদক্ষ পল্লী চিকিৎসকের বিরুদ্ধে আইনি ব্যাবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। 
কেশবপুর উপজেলা পশু সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেন বিভিন্ন এলাকায় অদক্ষ পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসার কারণে উন্নত জাতের পশুর মৃত্যুর খবর পায়। অভিযোগ পেলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে। 
এ ব্যাপারে পশু চিকিৎসক সুধাম মন্ডলের মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি এক বেকার যুবক, প্যারামেডিকেল টেকনোলজি থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে পশু চিকিৎসক হয়েছি। চিকিৎসায় একটু ভুল হতে পারে।