অবৈধভাবে বালি উত্তোলনে প্রধান শিক্ষক!

এখন সময়: বুধবার, ৭ ডিসেম্বর , ২০২২ ০৮:৩১:২২ am

সিরাজুল ইসলাম, কেশবপুর : কেশবপুর উপজেলার গৌরীঘোনা গ্রামে ভদ্রানদী থেকে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করে বিক্রি করছেন  গৌরীঘোনা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অশোক কুমার দে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল শনিবার সকালে সরেজমিনে জানা গেছে, কেশবপুর উপজেলার গৌরীঘোনা ইউনিয়নের গৌরীঘোনা গ্রামের মৃত নিতাই দের পুত্র গৌরীঘোনা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অশোক কুমার দে গ্রামের ভিতর দিয়ে বয়ে যাওয়া ভদ্রা নদীতে একাধিক বালি উত্তোলনের মেশিন লাগিয়েছেন। নদীর বালি উত্তোলন করে বসতবাড়ির আঙ্গিনায় বালি উত্তোলন করে ভরাট করা হয়েছে। প্রতিবেশীরা জানান, অশোক মাস্টার ভদ্রা নদীতে বালি উত্তোলনের মেশিন দিয়ে বালি উত্তোলন করে অবৈধ ব্যবসা করে চলেছে। এলাকাটি গহীন জঙ্গল হওয়ায় প্রশাসনের নজরে না আসায় অশোক মাস্টারের নেতৃত্বে একটি চক্র অবৈধ বালি উত্তোলনের ব্যবসা করে চলেছে।

ইউপি চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান দেশের বাইরে থাকার কারণে তারা এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে অশোক কুমার দে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলন করে বিক্রি করছেন।

এ ব্যাপারে মাস্টার অশোক কুমার দের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান ‘আমি ব্যক্তিগত ভাবে কিছু স্থানে বালি উত্তোলন করেছি। কিন্তু ব্যবসা করিনা। শোলগাতিয়ার ইকবাল হোসেন তার মেশিন দিয়ে সন্যাসগাছা গ্রামের টিটোর সহযোগিতায় বালি উত্তোলন করা হচ্ছে’।

এলাকাবাসী উপজেলা প্রশাসনের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছে।