শারদীয় দুর্গোৎসবে আজ মহাসপ্তমী পূজা

এখন সময়: শনিবার, ২৬ নভেম্বর , ২০২২ ১৫:২৮:৪৫ pm

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেবীর বোধন ও ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শনিবার শুরু হয়েছে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয়  উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব। তিথি অনুযায়ী সন্ধ্যায় দুর্গাতিনাশিনী দেবীদুর্গার বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাস অনুষ্ঠিত হয়। আজ রোববার অনুষ্ঠিত হবে দেবীদুর্গার মহাসপ্তমী পূজা। মন্দির ও মণ্ডপে মণ্ডপে স্থাপন করা হয় বোধনের ঘট। ভক্তের ভক্তি, নিষ্ঠা আর পূজার আনুষ্ঠানিকতায় মাতৃরূপে দেবী দুর্গা অধিষ্ঠিত হন মণ্ডপে মণ্ডপে। তিথির কারণে একই দিন মহাষষ্ঠী পূজা হয়। দেবী দুর্গার আগমনে উচ্ছ্বসিত ভক্তকুল। সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে পূজা আরম্ভ হয়। সায়ংকালে দেবীদুর্গার বোধন,  আমন্ত্রণ ও অধিবাসও হয়। বিশুদ্ধ পঞ্জিকা মতে বিকেল ৫ টায় হয় পূজা আরম্ভ। সকালে দেবী বোধনের পর মন্দির ও মণ্ডপে মণ্ডপে ভক্তবৃন্দের উপস্থিতিতে পুরোহিত দেবীদুর্গার পূজা করেন। এ সময় প্রতিটা পূজা মন্দির ও মণ্ডপে বাজানো হয় হিন্দু ধর্মীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীত। পূজার সময় ভক্তবৃন্দের শঙ্খ আর উলু ধ্বনিতে মুখরিত হয় মণ্ডপ গুলো। পূজা শেষে ভক্তবৃন্দকে অঞ্জলি প্রদান করা হয়। অঞ্জলি শেষে ভক্তবৃন্দ দুর্গতিনাশিনী দেবীদুর্গার চরণে পুষ্প দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে তাদের মনোবাসনা কায়েমের জন্য আরাধনা করেন।

বিগত দুই বছর করোনা মহামরির কারণে সারাদেশে উৎসবমুখর পরিবেশে দুর্গোৎসব উদযাপন না হলেও এবার জাকজমক ও উৎসবমুখর পরিবেশে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন হচ্ছে। যশোর শহর এবং শহরতলির উল্লেখযোগ্য মন্দির ও মণ্ডপগুলো হলো লালদিঘী পুকুরপাড় হরিসভা পূজা মন্দির, বাগমারা সড়ক সার্বজনীন পূজামণ্ডপ, ষষ্ঠীতলাপাড়া সার্বজনীন পূজামণ্ডপ, সন্যাসীদিঘীরপাড় সার্বজনীন পূজামণ্ডপ, শহিদ সুধীর বাবু কাঠগোলা পূজা মন্দির, সিদ্বেশ্বরী কালী মন্দির পূজা মন্দির, নীলগঞ্জ সুপারী বাগান সার্বজনীন পূজামণ্ডপসহ অনেক স্থানে অনুষ্ঠিত হয় শারদীয় দুর্গোৎসব। সন্ধ্যায় মন্দির ও মণ্ডপে মণ্ডপে অনুষ্ঠিত হয় সন্ধ্যারতি। দেবীদুর্গার মহাষষ্ঠী পূজায় যশোর শহরের মণ্ডপগুলোতে সন্ধ্যার পর ভক্তবৃন্দ ও দর্শনার্থীর উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়। সব মিলিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসবে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের মাঝে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। এ দিকে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন নির্বিঘœ করতে প্রতিটি মন্দির ও মণ্ডপে মণ্ডপে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তায় রয়েছে পুলিশের পাশাপাশি আনসার-ভিডিপি সদস্য। এছাড়াও প্রতিটি পূজামণ্ডপে রয়েছে তাদের স্বেচ্ছাসেবক। এ বাদেও রয়েছে পুলিশ ও র‌্যাব এর ভ্রাম্যমাণ টিম। দুর্গা পূজার সার্বিক বিষয়ে অবগত হওয়ার জন্য পূজা উদযাপন পরিষদ যশোর জেলা শাখা লালদিঘী পুকুরপাড়স্থ হরিসভা মন্দিরে কন্ট্রোল রুম খুলেছে।

রোববার দেবীদুর্গার মহাষষ্ঠী পূজায় যশোরের জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল  ইসলাম খান যশোর সদর, বাঘারপাড়া ও অভয়নগরের বিভিন্ন পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাজী সায়েমুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. রফিকুল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম সাইফ, আনসার ব্যাটালিয়নের জেলা কর্মকর্তা, পূজা উদযাপন পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি দীপংকর দাস রতন, সাধারণ সম্পাদক তপন কুমার ঘোষ, ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির সভাপতি হারুন অর রশিদ ও সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র সাংবাদিক সাজেদ রহমান বকুল, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়ন  (জেইউজে) সভাপতি ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আফজাল হোসেন দোদুল ও জেলা মহিলা লীগের সভাপতি লাইজুজ্জামান। পরিদর্শনকালে কর্মকর্তাবৃন্দ পূজারি, পূজা কমিটির নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় মানুষের সাথে কুশল বিনিময় করেন।