উদীচী যশোরের সাবেক সভাপতি খোকার স্ত্রীর মৃত্যু, শোক

এখন সময়: বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারি , ২০২৩ ১৯:১৮:৩০ pm

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে সাংস্কৃতিক আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব রুহুল হক খোকার সহধর্মিণী রেজিনা আক্তার মঞ্জু মারা গেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ছয়টায় ঢাকার বাসায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। অসম্ভব প্রাণ শক্তি নিয়ে যশোরের সামাজিক সাংস্কৃতিক অঙ্গনে সকলকে সমানভাবে অনুপ্রেরণা দিয়ে গেছেন রেজিনা আক্তার।

গত ২৭ নভেম্বর ছিল তার ৭৩ তম জন্মদিন। শুক্রবার তিনি চলে গেলেন সবকিছুর ঊর্ধ্বে, চির ঘুমে। স্বামীর মৃত্যুর পর পোস্ট অফিসপাড়ার বাড়িতে বসবাস করতেন তিনি। দু’বছর আগে একসাথে তার বড় মেয়ে আর জামাই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারানোর গভীর শোক বয়ে বেড়াচ্ছিলেন রেজিনা। তারপর থেকে থাকতেন ঢাকায় ছোট মেয়ে লুবনা আফরোজ পাপ্পুর সাথে। গত বছরের ডিসেম্বরে যশোরে আসেন রেজিনা আক্তার। যশোরের প্রিয় আলয়ে শেষ দিনগুলো কাটানোর ইচ্ছে ব্যক্ত করেন মেয়ে পাপ্পুর কাছে। এ কারণে শুরু হয় ঘর সংস্কার। ইতোমধ্যে পোস্ট অফিসপাড়ার পুরানো বাড়িটি সাজানো হয়েছে নতুন রূপে। এ সপ্তাহেই বাড়িতে  ফেরার সব প্রস্তুতিও ছিল তাদের। কিন্তু তিনি বাড়িতে ফিরলেন ঠিকই; তবে, নিরব নিথর দেহে।

শুক্রবার রাতে তার মরদেহ যশোরে এসে পৌঁছায়। শনিবার সকাল নয়টায় উদীচীর রুহুল হক খোকা মঞ্চে তার মরদেহ সকলের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাখা হবে। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সকাল ১০ টায় পোস্ট অফিসপাড়ায় গ্রামের কাগজ অফিসের সামনে তার জানাজা  শেষে খড়কি কবরস্থানে দাফন করা হবে।

১৯৫০ সালের ২৭ নভেম্বর চট্টগ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন রেজিনা আক্তার। ১৯৭৮ সালে রুহুল হক খোকার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। যশোরে এসে তিনি সাংস্কৃতিক অঙ্গনের মানুষের কাছে হয়ে ওঠেন প্রিয় মুখ। শুরু থেকে জীবনের সময় পর্যন্ত তিনি সমানভাবে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেন সকলের সাথে। হঠাৎ ফোন করে খোঁজ খবর নিয়ে চমকে দেওয়াটা তার অন্যতম ‘গুন’ ছিল বলে জানান তার সুহৃদরা। গ্রামের কাগজ পরিবারের কাছের মানুষ আর সুহৃদ ছিলেন তিনি। যশোরে এসে তিনি সময় কাটাতেন কাগজ পরিবারের সাথে। গ্রামের কাগজের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, ছোটদের জন্মদিনসহ আনন্দঘন সব অনুষ্ঠানের তিনি থাকতেন মধ্যমণি।

রেজিনা আক্তার যশোর উদীচী যশোরের উপদেষ্টা, রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলনী পরিষদ যশোরের সহসভাপতি ছিলেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত ছিলেন। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন উদীচী যশোরের সভাপতি তন্দ্রা ভট্টাচার্য্য, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান খান বিপ্লব, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি সুকুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার আলম খান দুলু, রবীন্দ্র সংগীত সম্মিলনী পরিষদের সভাপতি শ্রাবণী সুর, সাধারণ সম্পাদক শুভঙ্কর গুপ্ত, গ্রামের কাগজ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, সহযোগী সম্পাদক আঞ্জুমানারাসহ যশোরের সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক অঙ্গনের বিশিষ্টজনেরা।