লিটনের ব্যাটিং তাণ্ডব ও সাকিবের অলরাউন্ড নৈপূণ্য

পর্যদুস্ত আয়ারল্যান্ড, সিরিজ বাংলাদেশের

এখন সময়: শুক্রবার, ২১ জুন , ২০২৪, ১০:৩৭:১৬ পিএম

ক্রীড়া প্রতিবেদক: কী নাম দেওয়া যায়, সাইক্লোন, টর্নেডো নাকি টাইফুন? আইরিশ বোলাররা বলতে পারেন, ‘নাম যেটাই হোক, তাণ্ডব তো একই!’  চট্টলার ২২ গজে লিটন কুমার দাস ও রনি তালুকদার ব্যাট হাতে যা করলেন, সেটিকে আসলে বলা যায় তাণ্ডবলীলা। সেই বিধ্বস্ত জনপদে পরে দাপটে ছড়ি ঘোরালেন সাকিব আল হাসানও। প্রথমে ব্যাটিংয়ে, এরপর বোলিংয়ে। সব মিলিয়ে পর্যদুস্ত আয়ারল্যান্ড, একগাদা রেকর্ডের ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত করলো বাংলাদেশ।

চট্টগ্রামে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বুধবার আয়ারল্যান্ডকে ৭৭ রানে হারিয়ে প্রত্যাশিতভাবেই এক ম্যাচ বাকি রেখে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ।

জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে বুধবার টসের পরই নামে বৃষ্টি। খেলা নেমে আসে ১৭ ওভারে। খেলা শুরু হতেই শুরু হয় লিটন ও রনির ঝড়। চার-ছক্কার মালা সাজিয়ে উদ্বোধনী জুটির রেকর্ড গড়েন দুজন। বাংলাদেশ তোলে ৩ উইতেটে ২০২ রান। রান তাড়ায় লড়াই জমাতেই পারেনি আইরিশরা। ১৭ ওভারে করতে পারে তারা ১২৫।

লিটন-রনির জুটিতে ১২৪ রান আসে স্রেফ ৫৬ বলে। বাংলাদেশের হয়ে টি-টোয়েন্টিতে যা সেরা উদ্বোধনী জুটি।

দেশের হয়ে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড গড়ে লিটন শেষ পর্যন্ত আউট হন ৪১ বলে ৮৩ রানে। আগের ম্যাচে দারুণ ফিফটিতে ম্যাচের সেরা হওয়া রনি এবার ২৩ বলে করেন ৪৪।

সেই ধারা ধরে রেখে তিনে নেমে ২৪ বলে ৩৮ রানে অপরাজিত থাকেন সাকিব। ব্যাটিং সাফল্যের রেশ নিয়ে জ্বলে ওঠেন তিনি বল হাতেও। নিজের প্রথম বলে উইকেট নিয়ে শুরু, ৪ ওভারে ২২ রানে নেন ৫ উইকেট।

এই পরিক্রমায় টিম সাউদিকে ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে উইকেট শিকারের শীর্ষে উঠে যান তিনি। আরও বেশ কিছু অর্জনে নিজেকে রাঙিয়ে তোলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। ম্যাচের সেরাও তিনিই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ : ১৭ ওভারে ২০২/৩ (লিটন ৮৩, রনি ৪৪, সাকিব ৩৮*, হৃদয় ২৪, শান্ত ২*; ডেল্যানি ২-০-২৪-০, মার্ক অ্যাডায়ার ৪-০-৫২-১, হিউম ৩-০-৪৯-০, হ্যান্ড ১-০-১৯-০, হোয়াইট ৪-০-২৮-২, টেক্টর ২-০-১৭-০, ক্যাম্পার ১-০-১০-০)

আয়ারল্যান্ড : ১৭ ওভারে ১২৫/৯ (স্টার্লিং ০, অ্যাডায়ার ৬, টাকার ৫, টেক্টর ২২, ডেল্যানি ৬, ডকরেল ২, ক্যাম্পার ৫০, অ্যাডায়ার ৬, হ্যান্ড ২, হিউম ২০*, হোয়াইট ২*; তাসকিন ৪-০-২৭-৩, সাকিব ৪-০-২২-৫, নাসুম ৩-০-৩৭-০, মিরাজ ১-০-৯-০, হাসান ২-০-৬-১, মুস্তাফিজ ৩-০-২১-০)

ফল: বাংলাদেশ ৭৭ রানে জয়ী।

সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ২-০তে এগিয়ে।

ম্যান অব দা ম্যাচ : সাকিব আল হাসান।