বাগেরহাটে আ.লীগ নেতার হাত-পা ভেঙে দিলো প্রতিপক্ষ

এখন সময়: মঙ্গলবার, ২১ মে , ২০২৪, ০৩:৪৪:১১ এম

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জের জোহর আলী খাঁ (৭০) নামের এক আওয়ামী লীগ নেতার হাত-পা ভেঙে দিয়েছে প্রতিপক্ষ। শুক্রবার  দুপুরে জুমার নামাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে স্থানীয় প্রতিপক্ষরা তার পথ রোধ করে আটকে মারধর করে। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্বজনরা বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। জোহর আলী খাঁ মোরেলগঞ্জ উপজেলার হোগলাপাশা ইউনিয়নের কিসমতপুর এলাকার বাসিন্দা। তিনি ওই ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি।

আহত জোহর আলীল ছেলে হোগলাপাশা ইউনিয়ন যুবলীগের সহসভাপতি মো. আল আমিন খাঁ বলেন, জুমার নামাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ফরিদুল ইসলাম ফরিদের লোকজন আমার বাবার উপর আক্রমণ করে। তারা লোহার পাইপ ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আমার বাবার বাম হাত ও দুই পা ভেঙে রক্তাক্ত জখম করে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। পরে খবর পেয়ে আমরা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসি। আল আমিন আরও বলেন, আমরা আওয়ামী লীগ পরিবার। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমরা দলের পক্ষে নৌকার হয়ে কাজ করি। এখানে চেয়ারম্যান হয়েছেন বিদ্রোহী প্রার্থী। সেই থেকে চেয়ারম্যানের লোকজন আমাদের উপর নানা ভাবে অত্যাচার নির্যাতন চালিয়ে আসছে। একটি মামলায় চেয়ারম্যানের লোকদের বিরুদ্ধে আদালতে সাক্ষী দিয়েছি। সেই জেরে চেয়ারম্যান তার লোক দিয়ে আমার বাবার উপর হামলা করেছে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে হোগলাপাশা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি মো. ফরিদুল ইসলাম ফরিদ বলেন, ‘সে এলাকার চিহ্নিত চোর। কিছু দিন আগে ওই এলাকায় একটি মারামারি হয়েছিল। আমার মেম্বর (ইউপি সদস্য) কামরুজ্জামান টুকুকে মারধার করেছিল এই ব্যক্তি এবং কয়েক জন। এই নিয়ে নাকি একটা গন্ডোগোল হইছে শুনছি। আমি তো এলাকাতেই নেই, ঢাকায় আসছি। আমার বিষয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে।’ জানতে চাইলে মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জোহর কাছে গিয়ে পুলিশ খোঁজখবর নিচ্ছে। ঘটনার সাথে জড়িতের শনাক্ত করে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।