যবিপ্রবির ফার্মেসী বিভাগের নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা

এখন সময়: শুক্রবার, ১৯ জুলাই , ২০২৪, ০৮:৩৯:২৫ পিএম

প্রেসবিজ্ঞপ্তি : নবীনদের ফুল দিয়ে বরণ, বিদায়ী শিক্ষার্থীদের সম্মাননা স্মারক প্রদান, আলোচনাসভা, মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা আয়োজনে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ফার্মেসী বিভাগের নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বিশ^বিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের গ্যালারিতে শনিবার ফার্মেসী বিভাগের উদ্যোগে নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ ও বিদায়ী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন।  

ভালো ফার্মাসিস্ট হওয়ার লক্ষ্যে শিক্ষকদের পাশপাশি শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসার আহŸান জানিয়ে অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, ফার্মেসী বিভাগ হলো দক্ষ ও মেধাবী ফার্মাসিস্ট তৈরির বিভাগ। ভালো ফার্মাসিস্ট হতে হলে তোমাদের দক্ষ ও পরিশ্রমী হতে হবে। দেশের যে লক্ষ্য আগামীতে বিশ^ মার্কেটে দেশীয় ঔষুধ রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা। তার জন্য তোমাদের নিজেদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। পৃথিবীর ফার্মসিউটিক্যালস এখন বায়োলজিক্যাল ম্যাটেরিয়ালের দিকে ধাবিত হচ্ছে। তাই তোমাদের বায়োলজিক্যাল ম্যাটেরিয়াল সম্পর্কে আরও স্বচ্ছ ধারণা থাকতে হবে। দক্ষ হয়ে নিজেদের আলোকিত করতে হবে, দেশকে আলোকিত করতে হবে। 

ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া সম্পর্ক আরও জোরদার করার উদ্দেশে অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়ার মেলবন্ধন যদি শক্তিশালী না হয়, তাহলে নতুন কিছু আবিষ্কার সম্ভব না। বিশ^ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে দক্ষ মানবশক্তি তৈরি করতে হবে। দক্ষ মানব শক্তি তৈরি করতে ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে আসতে হবে। ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া মেলবন্ধন না হলে এ দেশের অগ্রায়ণ সম্ভব না। 

ফার্মেসী বিভাগের চেয়ারম্যান ড. কিশোর মজুমদারের সভাপতিত্বে নবীন বরণ ও বিদায় অনুষ্ঠানে বিশ^বিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ ইকবাল কবীর জাহিদ, ইনসেপ্টা ফার্মাসিটিউক্যালস লিমিটেডের প্রেসিডেন্ট এ এইচ এম কামরুজ্জামান, ফার্মেসী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ জসিম উদ্দিন, বিভাগটির শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ শাহারিয়ার রিজভি, সুজানা তাহরিম প্রমুখ বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে ফার্মেসী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. রশীদুর রহমান, দেবেন্দ্র নাথ রায়, কিশোর কুমার সরকার, প্রভাষক মো. নাজমুল হাসান জিলানীসহ বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থী মাইশা রহমান ও সাব্বির রহমান। সন্ধ্যায় বিভাগটির শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।