শরণখোলায় অগ্নিকাণ্ডে গুদামসহ ৯ দোকান পুড়ে ছাই

এখন সময়: বুধবার, ৭ ডিসেম্বর , ২০২২ ১৬:৩৯:১৭ pm

আ. মালেক রেজা, শরণখোলা : বাগেরহাটের শরণখোলায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২টি গুদাম ঘরসহ ৯ টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে উপজেলার রায়েন্দা ইউনিয়নের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে সৌদি প্রবাসী জামাল হোসেন নুরের ৭ তলা ভবনের সামনে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

শরণখোলা ফায়ার সার্ভিসের টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই দোকানগুলো পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর শুনে শরণখোলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রায়হান উদ্দিন শান্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নুর-ই আলম সিদ্দিকী ও অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শরণখোলা মোঃ ইকরাম হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে উপজেলার রায়েন্দা বাজার হাসপাতাল সড়কের মক্কা টাওয়ারের সামনে টিনসেড মার্কেটে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় মো. জাহাঙ্গীর শাহ’র কাপড়ের দোকান, মো. অলিউল্লাহর পাখি ঘর, মো. মোস্তফা ও অহিদুজ্জামান লিটনের ফার্নিচারের দোকান, অলিউর রহমানের থাইগ্লাস ওয়ার্কশপ ও আঃ সালাম হাওলাদারের গুদাম ঘরে বহুতল ভবনের লিফট সামগ্রী সম্পূর্ণ ভস্মিভূত হয়। তবে, দোকান ও ঘর মালিকদের দাবী অগ্নিকান্ডের ঘটনায় প্রায় দুই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস শরণখোলা স্টেশন কর্মকর্তা শেখ ফিরোজ আলী জানান, জরুরী সেবা ৯৯৯ এ খবর পেয়ে ভোর ৫টা ২০ মিনিটের সময় আমরা সংবাদ পাই। আমাদের অগ্নি নির্বাপক দল ঘটনাস্থলে পৌছানোর আগেই দোকানগুলো অধিকাংশ পুড়ে ছাই হয়েছে। তবে, ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের দক্ষতায় আশেপাশের পরিবার ও দোকান রক্ষা করা সম্ভব হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নুর-ই আলম সিদ্দিকী বলেন, ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্নয়ের জন্য প্রকল্প কর্মকর্তা মোঃ আঃ আলীমকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিকরা আবেদন করলে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়, উপজেলা প্রসাশন ও উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হবে।