ঝিনাইদহের তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

এখন সময়: বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর , ২০২২ ০০:২৭:৫৮ am

নিজস্ব প্রতিবেদক: মানহানির অভিযোগে প্রজন্ম একাত্তর ও খবরপত্র পত্রিকার ৩ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে যশোর আদালতে মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রেলওয়ে ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ মোবারকগঞ্জের ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী/পথ ও মণিরামপুরের দুর্বাডাঙ্গা গ্রামের স্বদেশ কুমারের ছেলে সুমন কুমার বসু বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শম্পা বসু অভিযোগের তদন্ত করে সিআইডি পুলিশকে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দিয়েছেন।

আসামিরা হলেন, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের হেলাই গ্রামের আকরাম হোসেনের ছেলে হুমায়ুন কবির সোহাগ, ঝিনাইদহ সদরের নলডাঙ্গা গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে আহসান হাবিব ও ঈশ্বরবা গ্রামের মৃত তোরাব আলীর ছেলে এনামুল হক সিদ্দিক।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, সুমন কুমার বসু রেলওয়ে মোবারকগঞ্জের উর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী/পথ হিসেবে কর্মরত আছেন। মোবারকগঞ্জ রেলওয়ের আওতায় একটি মেহগনি গাছ বিক্রি করেন জনৈক রাশেদুজ্জামান নামে এক ব্যক্তি। এ সংবাদ জানতে পেরে তিনি অফিসের দুইজন স্টাফ পাঠিয়ে গাছ উদ্ধার করে স্টেশনের প্রাচীর ঘেঁষে রেখে দেন। এ ঘটনার দুইদিন পর তিনি চট্টগ্রাম হালি শহরে ট্রেনিংয়ে চলে যান। ৮ মাস পর ফিরে দেখেন প্রাচীরের পাশে রাখা গাছের লগ নেই। খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন কাউন্সিলর সজল, রানা ও আশিকের কাছ থেকে ওই লগ কিনেছেন ববি ও শীতল। গত ১১ নভেম্বর খবরপত্র পত্রিকায় মোবারকগঞ্জ রেলওয়ের গাছ বলে তুলে এনে বিক্রির অভিযোগ শিরোনামে একটি সংবাদ ছাপা হয়। এছাড়া ১৫ নভেম্বর প্রজন্ম একাত্তর পত্রিকায় মোবারকগঞ্জ রেলওয়ের ৩ কর্মচারীর স্থলে ভাড়া খাটছেন অন্য ৩ জন শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। তিনি মণিরামপুরের চিনাটোলা বাজারের জয় কুন্ডুর মিষ্টির দোকানে বসে এ সংবাদ প্রকাশের বিষয়টি জানতে পারেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে রেলওয়েতে সুনামের সাথে চাকরি করছেন। আসামিরা পরিকল্পিতভাবে সুনাম ক্ষুণেœর উদ্দেশ্যে এ ধরনের সংবাদ প্রকাশ করে মানহানি করায় তিনি আদালতে এ মামলা করেছেন।