করোনার টিকা নিতে আগ্রহ কম

এখন সময়: বুধবার, ৩০ নভেম্বর , ২০২২ ২৩:৪৭:২১ pm

খুলনা প্রতিনিধি: খুলনার মানুষের মধ্যে করোনার টিকা গ্রহণের আগ্রহ কমেছে। গত দেড় বছরে জেলায় ৫৫ লাখ ৩৯ হাজার নারী-পুরুষ টিকা নিয়েছেন। কিন্তু টিকা নেয়ায় এখন আর কেউ আগ্রহী নন তেমন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জেলায় ১ লাখ ডোজ টিকা মজুদ রয়েছে। টিকার মজুদের মধ্যে ফাইজারের মেয়াদোর্ত্তীণ হবে আগামী ৩০ নভেম্বর। বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মজুদকৃত ১২ হাজার ৬০ ডোজ ফাইজার ও ৩৩ হাজার ৮৭৩ ডোজ ফাইজার ( শিশু) টিকার ডোজের মেয়াদ শেষ হবে ৩০ নভেম্বর। ৩ হাজার ৯৩৭ ডোজ জনসন ও ৩৫ হাজার ২২১ ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকোর ডোজের মেয়াদ আগামী ৭ ডিসেম্বর শেষ হবে। ১৯ হাজার ২১২ ডোজ সিনোফার্মের মেয়াদ আগামী বছরের ২৪ অক্টোবর শেষ হবে।

জানা গেছে, গত বছরের ১৯ জুন থেকে এ বছরের ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত ৫৫ লাখ ৩৯ হাজার নারী- পুরুষ টিকা নিয়েছেন। এরমধ্যে  ২৩ লাখ ৫৭ হাজার প্রথম ডোজ, ২০ লাখ ২১ হাজার দ্বিতীয় ডোজ এবং ১১ লাখ ৬০ হাজার জন বুস্টার ডোজ নিয়েছেন।  সিনোফার্মের মাধ্যমে এখানে টিকাদানের সূচনা হয়। গত বছরের জুন থেকে এ পর্যন্ত ৫৬ লাখ ৫৮ হাজার ২৩৯ ডোজ টিকা আসে। এসব টিকার মধ্যে রয়েছে অ্যাস্ট্রাজেনেকো, সিনোফার্ম, মর্ডানা, ফাইজার, শিক্ষার্থীদের জনসন, সিনোভ্যাক্স ও ফাইজার।

গত দেড় বছরে জেলায় ৮ হাজার ৮৭১ ডোজ টিকা অপচয় হয়। এট মধ্যে মর্ডানার পরিমাণ বেশি। খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা মনজুরুল মোর্শেদ বলেন, টিকা শীততাপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষে থাকে। অপচয় ও নষ্ট হওয়ার পরিমাণ কম। জেলার বিভিন্ন স্থানে টিকাদানের কার্যক্রম চলছে। মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই টিকাগুলো ব্যবহার হবে। এমন টিকা আছে যার মেয়াদ আগামী বছর শেষ হবে।

খুলনার সিভিল সার্জন ডা সুজাত আহম্মদ জেলা উন্নয়ন কমিটির সভায় বলেন, করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। যারা বুস্টার ডোজ নেননি তাদের টিকা নেয়ার আহবান জানান তিনি।