আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসবের দশমদিনে ‘সার্কাস সার্কাস’ মঞ্চস্থ

এখন সময়: বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি , ২০২৩ ০১:৩১:৩২ am

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে থিয়েটার ক্যানভাস আয়োজিত আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসবের দশমদিনে শনিবার মঞ্চস্থ হয় নাটক   ‘সার্কাস সার্কাস। আজাদ আবুল কালাম রচিত এবং নির্দেশিত এই নাটকটি প্রযোজনা করেছেন প্রাচ্যনাট ঢাকা। 

দি গ্রেট বেঙ্গল সার্কাস এককালে নামডাক ছিল প্রতিষ্ঠাতা লক্ষন দাসের কারণে। তার ভাই সাধন দাস কষ্টে সৃষ্টে দলটিকে চালাচ্ছেন। মুক্তিযুদ্ধে যে দলটি নিস্ব হয়েছিল তাকে আবার একটু একটু করে সংগঠিত করে বিভিন্ন অঞ্চলের সার্কাস প্রদর্শনের ধারাবাহিকতায় একটি আমন্ত্রণের দলবল নিয়ে এসেছেন  নবগ্রামে। দলের সমস্যার অন্ত নেই খেলোয়াড়রা সবাই পারদর্শী এমনটাও বলা যাবে না। খেলোয়াড়দের মধ্যকার ব্যক্তিগত সর্ম্পকের টানাপোড়েনে সবাই তটস্থ। শুরুতে কিছু মৌলবাদী সংগঠন সার্কাস প্রদর্শনের বাধ সাধে ধর্মের সামাজিকতার দোহাই দিয়ে। সাধন দাস বিপাকে পড়ে যান কিন্তু পূর্ব শিক্ষা তাকে যেমন করেছে সংশয়ী তেমনি আবার করেছে নিঃসঙ্কোচিত্র। মুখোমুখি হয়ে যায় দুটো পক্ষ। এর মাঝে বিভিন্ন দিক থেকে আসতে থাকে একের পর এক সাবধান বাণী চারিদিকে সবাই যেন তাকে ভয় দেখায়। দলের একটি মেয়ে নিখোঁজ হয়ে যায়। মা বাঘটি নিস্তেজ হয়ে পড়েছে। এমনই এক অনিশ্চয়তার মাঝখানে মুসলিম মৌলবাদী সংগঠনটি গভীর রাতে হামলা চালায়। আগুন ধরিয়ে দেয় প্যান্ডেলে । একে একে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে ৩ জন খেলোয়াড়। আগুনে পুড়ে যায় জীব জানোয়ার। সেই ধোয়ার কুন্ডলীর মাঝে কেউ একজন খুঁজে ফেরে সন্তান সম্ভাব্য বাঘটিকে। গল্পটি একটু অতীতকালের ঘটে যাওয়া ঘটনা।

১ ঘন্টা ৪০ মিনিটের  এই নাটকে অভিনয় করেছেন ২০ জন শিল্পী।  তারা হলেন শাখাওয়াত হোসেন রেজভী, জাহাঙ্গীর আলম, রাহুল আনন্দ, রিফাত আহমেদ নোভেল, শতাব্দি ওয়াদুদ, রিতু সাত্তার, শাহানা সুমি, পারভিন সুলতানা কলি, সঞ্জীবন শিকদার, মিজানুর রহমান মিতুল, সাইদুর রহমান রাসেল, মাছিহুদৌল্লাহ্ আজাদ,জগন্ময় পাল, শাহরিয়ার সজিব, মোস্তাক আহমেদ টিটু, অ্যালেন শুভ্র, আজাদ আবুল কালাম, আসলামুজ্জামান পলাশ, তপন মজুমদার এবং শাহেদ আলী।