যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের বর্হিঃবিভাগে চেম্বার করতে পারবেন না যমেকের মেডিসিন ডাক্তাররা!

এখন সময়: শুক্রবার, ২১ জুন , ২০২৪, ১১:২৯:০৬ পিএম

বিল্লাল হোসেন: যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের বর্হিঃবিভাগে মেডিকেল কলেজের (যমেক) কোন চিকিৎসককে চেম্বার করতে দেয়া হবে না। সরকারি নির্দেশনা না মেনে ইচ্ছামতো দায়িত্ব পালন করায় হাসপাতালের কর্মকর্তারা ক্ষুব্ধ হয়ে তাদের চেম্বারে বসতে নিষেধ করেছেন। এখন থেকে মেডিসিনের চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদান করবেন হাসপাতালের নিজস্ব চিকিৎসকরা। বিষয়টি নিশ্চিত করে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. হারুন অর রশিদ জানান, যমেকের চিকিৎসকদের অনিয়মের প্রতিবাদে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া বর্হিঃবিভাগের কোনো কক্ষে অনারারি ডাক্তার রোগী দেখতে পারবেন না বলে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। চিকিৎসকের অনুপস্থিতিতে মঙ্গলবার ৭ নম্বর কক্ষে বসে তত্ত্বাবধায়ক নিজেই রোগী দেখে ব্যবস্থাপত্র দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে মেডিকেল কলেজের উচ্চ ডিগ্রিধারী চিকিৎসকদের রোস্ট্রার অনুযায়ী দায়িত্ব পালনের কথা। কিন্ত মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসকরা  বর্হিঃবিভাগের ১ নম্বর কক্ষে দায়িত্ব পালনে কোন নিয়মনীতি মানেন না। চেম্বারে তারা ইচ্ছা মতো আসে-যান। এতে চিকিৎসার জন্য এসে রোগীদের হয়রানি ও দুভোর্গের শিকার হতে হয়।  অনেক দিন রোগীরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করেও ডাক্তারের দেখা পান না। সূত্র জানায়, যেটুকু সময় তারা হাসপাতালে চেম্বার করেন তাদের টার্গেট থাকে কিভাবে রোগীদের ব্যক্তিগত চেম্বারে নেয়া যায়। সেবার পরিবর্তে বাণিজ্যকে তারা বড় করে দেখেন।  এছাড়া সরকারি বর্হিঃবিভাগের কিছু কক্ষে রোগীদের চিকিৎসা প্রদান করেন অনারারি ডাক্তার। ফলে উন্নত চিকিৎসাসেবার জন্য এসে মানুষ প্রতারিত হচ্ছেন। রোগী ও সচেতন মহলের মাধ্যমে বিষয়টি অবগত হন হাসপাতালের কর্মকর্তারা। তারা অনিয়ম বন্ধে সোচ্চার হন।

কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নেন মেডিসিনের বর্হিঃবিভাগে যমেকের কোন চিকিৎসককে বসতে দেয়া হবেনা। তাদের স্থানে দায়িত্ব পালন করবেন হাসপাতালের নিজস্ব মেডিসিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। কেননা যমেকের চিকিৎসকদের অনিয়মে হাসপাতালের চিকিৎসাসেবায় হ-য-ব-র-ল অবস্থা তৈরি হচ্ছে। কিন্ত মেডিকেল কলেজ  প্রশাসন পরিচালনা করায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সরাসরি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারেন না। তাই বাঁধ্য হয়ে যমেকের চিকিৎসকদের হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে চেম্বারে বসতে নিষেধ করা হয়েছে। অন্য বিভাগের চিকিৎসকদের দায়িত্ব পালনে কোন বাঁধা নেই। তবে অনিয়মের অভিযোগ পেলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর হবেন হাসপাতাল কর্মকর্তারা। হাসপাতালের তথ্য কর্মকর্তা ডা. গোলাম মোর্তুজা জানিয়েছেন, বর্হিঃবিভাগে প্রতিদিন শ রোগী চিকিৎসাসেবার জন্য আসেন। কিন্তু যমেকের চিকিৎসকের অনুপস্থিতিতে রোগীদের দুর্ভোগ বাড়ে। ফলে তাদের চেম্বারে বসতে নিষেধ করা হয়েছে। রোগীদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে সেখানে হাসপাতালের নিজস্ব চিকিৎসকরা নিয়ম মেনে দায়িত্ব পালন করবেন।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. হারুন অর রশিদ জানান, যমেকের চিকিৎসকদের অনিয়মের প্রতিবাদে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। রোগীদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে মূল লক্ষ্য। বর্হিঃবিভাগে তাদের দায়িত্ব পালনে নিষেধ করা হলেও অন্তঃবিভাগে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। তিনি আরও জানান, রোগীদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বর্হিঃবিভাগে কোন অনারারি ডাক্তার দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। মঙ্গলবার ৭ নম্বর কক্ষে দায়িত্ব পালনকারী চিকিৎসক অসুস্থ থাকায় সেখানে তিনি নিজে বসে রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদান করেছেন। তারপরেও অনারারিকে বসতে দেয়া হয়নি।