আলমডাঙ্গায় প্রাচীর দিয়ে একটি পরিবারকে অবরুদ্ধের অভিযোগ

এখন সময়: মঙ্গলবার, ২১ মে , ২০২৪, ০৫:৫৫:৫১ এম

 

আলমডাঙ্গা অফিস: আলমডাঙ্গা উপজেলার পারকুলা গ্রামে যাতায়াতের রাস্তায় সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করায় একটি মুক্তিযোদ্ধা পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বাড়ি থেকে বের হতে না পেরে বিপাকে পড়েছে ভুক্তভোগী পরিবারটি। পুলিশ প্রশাসন ঘটনাস্থলে গিয়ে এমন অমানবিক কাজ বন্ধের আহবান জানিয়েছেন। কিন্তু সেটি না শুনে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কালিদাসপুর ইউনিয়নের পারকুলা গ্রামের মিরাজুল ইসলামের ছেলে সোহেল রানা ৯ বছর আগে একই এলাকার সাহাবুদ্দিন সাবুর কাছ থেকে ৩ দশমিক ৩২ শতক জমি কেনেন। সাহাবুদ্দিন সাবু আরএস খতিয়ানের ৪৬ নম্বর দাগের ২২ শতক জমির মধ্যে ৩ দশমিক ৩২ শতক জমির উত্তর পার্শ্বে রাস্তা দেখিয়ে বিক্রি করেন। এনিয়ে পার্শ্ববর্তী জমির মালিক আবু হোসেনের ছেলে তরিকুল ইসলামের সাথে রাস্তা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়। তখন সাবু দুই পক্ষকে ডেকে ইসমাইলের জমির পেছন দিক দিয়ে সোহেল রানার পরিবারকে বের হওয়ার ব্যবস্থা বের করে দেন।

গত ৪ বছর ধরে ওই রাস্তা ব্যবহার করছেন সোহেল রানা ও তার পরিবারের লোকজন। এর একপর্যায়ে আরেক প্রতিবেশী মৃত আরশেদ আলীর ছেলে ইসমাইল হোসেন গত তিন মাস ধরে রাস্তা নিয়ে দ্বন্দ্ব শুরু করেন। এনিয়ে দফায় দফায় স্থানীয় ফাঁড়ির পুলিশ ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের উদ্যোগে শালিস বৈঠক হয়।

বৈঠকে ইসমাইলের জমির মধ্যে থেকে সরকারি খাস জমিতে রাস্তা বের করার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু ইসমাইল ও তার পরিবারের লোকজন তাদের যাতায়াত করতে দিচ্ছে না। সোমবার সকালে ইসমাইল ও তার পরিবারের লোকজন ইটের প্রাচীর দিয়ে ওই পরিববারটিকে অবরুদ্ধ করে রাখে।