মহম্মদপুরে পিতার মৃত্যু নিয়ে হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

এখন সময়: বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন , ২০২৪, ০৬:২৬:৫৫ এম

মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি: মহম্মদপুরের রাজাপুর গ্রামের নিত্যনন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা আফজাল শেখ  নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু নিয়ে তার  দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের হয়রানি করা হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। রোববার বিকেলে দ্বিতীয় স্ত্রী শিল্পী বেগম ও মেয়ে তানিয়া খাতুন মহম্মদপুর প্রেসক্লাবে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এসময় তার মা শিল্পী বেগম উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়, বাবার প্রথম পক্ষের সৎ ভাই তাদের বিরুদ্ধে  বাবাকে হত্যার অভিযোগে নানা হয়রানি করছেন। তার বাবা আফজাল শেখ বেশি সময় পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী শিল্পী বেগমের বাড়িতে শয্যাশায়ী ছিলেন। তিনি একা একা চলাফেরা করতে পারেন না।  গত ৪ মে শনিবার দুপুরে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তার চিকিৎসার জন্য মাগুরা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে গোয়ালবাথান নামক স্থানে ইজিবাইকের মধ্যে মারা যান।

এই ঘটনায় স্থানীয় চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করলে তার মরদেহ বাড়িতে আনা হয়। প্রথম পক্ষের স্ত্রী ও সন্তানদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মরদেহের ময়না তদন্ত করে।

এ ঘটনার পর থেকে প্রথম পক্ষের সৎ ভাই নুরুল্লাহ ও তার লোকজন দ্বিতীয় স্ত্রী  ও তার ছেলেমেয়েদের বিরুদ্ধে বাবাকে হত্যার অভিযোগে লিখিত অভিযোগ করেন। এরপর তারা মানববন্ধন করেন। এ ঘটনার পর থেকে পরিবারটি উচ্ছেদ আতঙ্ক ও চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে জানান। আমাদের পৈত্রিক বসত ভিটা থেকে উচ্ছেদ করার জন্য মিথ্যা হত্যার অভিযোগ এনে হয়রানি করা হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। আমরা এই ঘটনায় ন্যায় বিচার দাবি করছি।

আফজাল শেখের প্রথম পক্ষের সন্তান নুরুল্লাহ জানান, আমার বাবার সম্পত্তি দখল করতে দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী ও সন্তানরা বাবাকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় তিনি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এ বিষয়ে মহম্মদপুর থানা অফিসার ইনচার্জ বোরহান উল ইসলাম বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। এঘটনায় তদন্ত চলছে।