বঙ্গবন্ধু ছিলেন অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী : প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য

এখন সময়: বুধবার, ৭ ডিসেম্বর , ২০২২ ১৫:৩৯:১১ pm

নূরুল হক, মণিরামপুর (যশোর): জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন অসম্প্রায়িক চেতনায় বিশ্বাসী। তিনি বিশ্বাস করতেন যুদ্ধ বিধ্বস্ত একটি দেশকে পুনর্গঠন করতে সামজিক সম্প্রীতির বিকল্প নেই। এ কারণেই তিনি সামাজিক সম্প্রীতির বন্ধনকে অটুট রেখে একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র গঠন করেছিলেন। মণিরামপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সামাজিক সম্প্রীতি ও সামাজিক বন্ধনকে সুসংহত করার লক্ষ্যে মণিরামপুরে সামাজিক-সম্প্রীতি কমিটির সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন সরকারের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী ও মণিরামপুর উপজেলা সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির প্রধান উপদেষ্টা স্বপন ভট্টাচার্য্য (এমপি)।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মণিরামপুর উপজেলা পরিষদ ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাহী অফিসার কবির হোসেন পলাশের সভাপতিত্বে এ সমাবেশে প্রধান অতিথি আরও বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির পিঠস্থান। হাজার বছর ধরে এ ভূখণ্ডে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল ধর্মের মানুষ মিলেমিশে একত্রে বসবাস করে আসছেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও সেই নীতিতেই আমাদের সংবিধানে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষের সমান অধিকার সুনিশ্চিত করেছিলেন। সুতরাং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও সামাজিক বন্ধনের এ ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রাখতে সকলকে সচেষ্ট থাকতে হবে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আলী হাসানের সঞ্চালনায় সম্প্রীতি সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আলহাজ কাজী মাহমুদুল হাসান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাজমা খানম, মণিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ নূর-ই-আলম সিদ্দীকি।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন মণিরামপুরে উপজেলা সামাজিক-সম্প্রীতি কমিটির অন্যতম সদস্য, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. বশির আহম্মেদ খান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী জলি আক্তারসহ উপজেলা সামাজিক-সম্প্রীতি কমিটির বিভিন্ন স্তরের সদস্য, ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দসহ বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, উপজেলা প্রশাসেনর বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা, গণমাধ্যমকর্মী, মসজিদের ইমাম, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পুরোহিত, সুশীল সমাজ ও শিক্ষার্থীরা।