প্রেমিকের জন্য মাদক আনতে গিয়ে প্রেমিকা শ্রীঘরে

এখন সময়: বুধবার, ১৭ এপ্রিল , ২০২৪, ০৬:২৯:১৩ পিএম

 

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: ১৬ বছরের কিশোরী সাদিয়া আফরিন। যশোর সদরের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল জব্বারের মেয়ে সাদিয়া লেখাপড়া ছেড়ে জড়িয়ে পড়ে বখাটে কিশোর গ্যাংয়ের সাথে। ওই গ্যাংয়েরই শুভ নামে এক যুবকের সাথে গড়ে ওঠে তার প্রেমজ সম্পর্ক। এরপর থেকেই মাদক ও আজে বাজে নেশায় আসক্তসহ হয়ে উঠে বেপরোয়া। বৃহস্পতিবার তার সেই প্রেমিকের জন্য ফেনসিডিল আনতে গিয়ে ধরা পড়ে আটক হয় কালীগঞ্জে পুলিশের হাতে।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ (তদন্ত) মানিক চন্দ্র গাইন জানান. মাদক পাচার হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে থানার এস আই প্রতিক কুমার দত্তসহ সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স কালীগঞ্জ কোটচাঁদপুর সড়কের পাতবিলা সেলিমের ইট ভাটার সামনে অবস্থান নেয়। এ সময় যশোরগামী যাত্রীবাইী গরিবশাহ বাস থামিয়ে যাত্রী সাদিয়ার ভ্যানিটি ব্যাগ থেকে ৮ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারসহ তাকে আটক করা হয়। বিকালে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দিয়ে সাদিয়াকে ঝিনাইদহ আদালতে প্রেরন করা হয়।

আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে সাদিয়া পুলিশকে জানিয়েছে, তার প্রেমিকের কথায় চুয়াডাঙ্গা থেকে ফেনসিডিল আনতে গিয়েছিল। সে জানায়, কয়েক বছর আগে তার মাকে ছেড়ে বাবা অন্যত্র চলে গেছে। এখন যশোরে তার মায়ের কাছে থাকে।

পুলিশ আরো জানায়, ফেনসিডিলসহ সাদিয়া আটকের খবর দেবার জন্য তার বাবা মাকে ফোন করা হয়েছিল। কিন্তু উত্তরে তার বাবা মেয়ের দায়িত্ব একেবারেই এড়িয়ে গেছেন। অপরদিকে মায়ের ভাষ্য এলাকার সঙ্গদোষে তার মেয়ে উচ্ছন্নে গেছে। সে দশম শ্রেনী পর্যন্তÍ পড়েছিল। এখন লেখা পড়া বাদ দিয়ে সে বখাটেদের সাথে মিশছে।  তাই তার কিছুই করার নেই।