একদিন পরেই দেবহাটা উপজেলা নির্বাচন, প্রার্থীদের জোর প্রচারণা

এখন সময়: শুক্রবার, ১২ জুলাই , ২০২৪, ০৪:৫৮:২১ পিএম

 

ইয়াছিন আলী, দেবহাটা (সাতক্ষীরা): আর একদিন পরেই দেবহাটা উপজেলা নির্বাচন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চলছে জোর প্রচার প্রচারণা। প্রার্থীরা ছুটছেন জনগণের দ্বারে দ্বারে বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি ও উন্নয়নের বার্তা নিয়ে। এ উপজেলার মোট ভোটার রয়েছেন ১ লাখ ১১ হাজার ৫২৭। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৬ হাজার ৫৫ ও মহিলা ভোটার রয়েছেন ৫৫ হাজার ৪৭১। ১ জন রয়েছেন হিজড়া সম্প্রদায়ের ভোটার। এই ভোটাররা ২১ মে নির্বাচন করবেন ৫ বছরের জন্য তাদের প্রতিনিধি কে হবেন। ভোটকে কেন্দ্র করে হাট-বাজার, রাস্তা-ঘাট, চায়ের দোকানসহ পাড়া মহল্লায় সর্বত্র আলোচনা সমালোচনা চলছে। এ বারের নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ২ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। চেয়ারম্যান পদে মুজিবর রহমান মোটর সাইকেল, অ্যাড. গোলাম মোস্তফা চিংড়ি মাছ, রফিকুল ইসলাম আনারস, আল ফেরদাউস আলফা হেলিকপ্টার ও আবু রাহান তিতু ঘোড়া প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে হাবিবুর রহমান সবুজ তালা ও বিজয় ঘোষ টিউবওয়েল এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জি.এম স্পর্শ কলসি ও আমেনা রহমান ফুটবল প্রতীকে লড়ছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মুজিবর রহমান জানান, বিগত সময়ে দায়িত্বে থাকাকালীন উপজেলার প্রতিটি সেক্টরে উন্নয়নের ছোঁয়া দিয়েছেন। তার সময়ে ১৩০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ হয়েছে, তাই ভোটাররা তাকে আবার নির্বাচিত করবেন। অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাড. গোলাম মোস্তফা বলেন, ২০০৯ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দেবহাটাকে একটি আধুনিক ও উন্নয়নের রোল মডেলে নিয়ে যেতে কাজ করেছেন। দেবহাটা রুপসী ম্যানগ্রোভ তার প্রচেষ্টায় তৈরি করেছেন যেখান থেকে এখন অনেক যুবকের কর্মসংস্থান তৈরি হয়েছে এবং সরকারের প্রচুর রাজস্ব আয় হচ্ছে। ভোটাররা তাকে আবার নির্বাচিত করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ও নির্বাচনে প্রার্থী হাবিবুর রহমান সবুজ এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী জি.এম স্পর্শ আবারো নির্বাচিত হবেন ও ভোটাররা তাদের মূল্যবান ভোট দেবেন বলে জানান।

দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, নির্বাচনকে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও ভোটারদের নিশ্চয়তা নিশ্চিতে নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা মেনে সকল কাজ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রতি ইউনিয়নে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নিয়োগের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সমন্বয়ে টহল টিম প্রতিনিয়ত কাজ করছে।