যশোরে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানে বিভাগীয় চাকরি মেলা

সৎ ও পরিশ্রমে আকিজ গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করেছেন আমার বাবা : এমপি শেখ আফিল

এখন সময়: শনিবার, ১৫ জুন , ২০২৪, ০৭:২৬:৩০ এম

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর শেখ হাসিনা সফটওয়ার টেকনোলজি পার্কে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানে বিভাগীয় চাকরি মেলা হয়েছে। সোমবার নাগরিক উদ্যোগের আয়োজনে দিনব্যাপী এই মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

মেলা উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জয়তী সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক অর্চনা বিশ^াস। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর-১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য ও আফিল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন।

এ সময় এমপি শেখ আফিল উদ্দিন বলেন, সরকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর কল্যাণে সব সময় কাজ করছে। চাকরি প্রার্থীদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, নিজেকে দক্ষ হিসেবে গড়ে তোলার পাশাপাশি সৎ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। সার্টিফিকেট অর্জন করলেই হবে না। অবশ্যই সততা, পরিশ্রম ও লক্ষ্য থাকতে হবে। তাহলে নিজের স্বপ্ন পূরণ হবে। নিজেদেরকে শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলবেন। কিন্তু আপনার মধ্যে সততা নেই। তাহলে সেই শিক্ষার কোন মূল্য নেই। কেননা শিক্ষিত জাতি যদি অসৎ হন তাহলে তারা সেই জাতির জন্য কখনো কল্যাণ বয়ে আনে না।

তিনি বলেন, সেখ আকিজ উদ্দিন জীবনে অনেক কষ্ট করেছেন। কিন্তু কখন লক্ষ্যচ্যুত ও অসৎ হননি। তিনি ফেরি করে বাদাম বিক্রি করেছেন। সৎ থেকে পরিশ্রম করেছেন বলে তিনি আকিজ গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করেছেন। আমার বাবা আকিজ উদ্দিন স্বপ্ন দেখতেন একদিন দেশের সব দোকানে তার প্রতিষ্ঠানের পণ্য পাওয়া যাবে। তিনি সেই লক্ষ্যে পৌঁছেছেন। এখন দেশের সব দোকানগুলোতে আকিজ গ্রুপের পণ্য পাওয়া যায়।

 প্রধান অতিথি আরো বলেন, ভিতেনামে নারী-পুরুষ সবাই সততা নিয়ে কাজ করেন। তারা অলস সময় কাটান না। এজন্য তারা সফল হয়েছেন। এজন্য অবশ্যই সবাইকে দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি পরিশ্রম আর সততার পরিচয় দিতে হবে। তাহলে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছানো যাবে। কেননা আপনি চাকরি পেলেন, অথচ আপনার দক্ষতা ও সততা নেই। আপনি সেখানে স্থায়ী হবেন না।

চাকরি মেলায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর যশোরের উপপরিচালক শহিদুল ইসলাম, অভয়নগরের উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়া মল্লিক, ক্রিশ্চিয়ান এইড বাংলাদেশের প্রোগ্রাম ম্যানেজার আনজুম নাহিদ চৌধুরী ও  আফিল গ্রুপের পরিচালক, দৈনিক স্পন্দনের নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব আলম লাবলু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন নাগরিক উদ্যোগের প্রধান নির্বাহী জাকির হোসেন।

 চাকুরি মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক  রফিকুল হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেসক্লাব যশোরের সাধারণ সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, আইটি পার্ক ইনভেস্টর অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আহসান কবীর বাবু, সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা রেজাউল করিম, জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারী পরিচালক শাহরিয়ার হাসান।

মেলায় অংশ নেয়া মণিরামপুরের খানপুর গ্রামের বিদ্যুৎ দাসের ছেলে আপন দাস বলেন, আমি অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। বাবা জুতা সেলাইয়ের কাজ করেন। পরিবারে অভাবের কারণে চাকরির জন্য সিভি জমা দিতে মেলায় এসেছি। কেশবপুরের মঙ্গলকোর্ট গ্রামের স্বপন বিশ^াসের ছেলে মিঠুন বিশ^াস জানান, এমএ পাশ করে চাকরি পাচ্ছি না। এজন্য নিজের সিভি জমা দেবার জন্য চাকরি মেলায় অংশ নিয়েছি।