যশোরে প্রাথমিক বৃত্তিতে শীর্ষে জিলা স্কুল

এখন সময়: মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২৪, ০১:০০:৩০ পিএম

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষায় সংশোধিত ফলাফলেও শীর্ষে রয়েছে জিলা স্কুল। এরপরের স্থানে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। বুধবার রাতে প্রকাশিত ফলাফলে এ তথ্য জানা গেছে।

জিলা স্কুল

যশোর জিলা স্কুল থেকে প্রাথমিকে বৃত্তি পেয়েছে পেয়েছে ৪৯ জন ছাত্র। এর মধ্যে ট্যালেন্টপুলে ৪৩ জন ও সাধারণ গ্রেডে ৬ জন।

সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়

সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক বৃত্তি পেয়েছে ৪৪ জন ছাত্রী। এর মধ্যে ট্যালেন্টপুলে ৪১ জন ও সাধারণ গ্রেডে-৩ জন।

পুলিশ লাইন স্কুল

পুলিশ লাইন স্কুল থেকে বৃত্তি পেয়েছে ১৫ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ট্যালেন্টপুলে ১৪ জন ও সাধারণ গ্রেডে ১ জন।

শিক্ষা বোর্ড সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ

শিক্ষা বোর্ড সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে বৃত্তি পেয়েছে ১৩ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ট্যালেন্টপুলে ১২ জন ও সাধারণ গ্রেডে ১ জন।

ইন্সটিটিউট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

ইন্সটিটিউট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে বৃত্তি পেয়েছে ৮ শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ট্যালেন্টপুলে ৪ জন ও সাধারণ গ্রেডে ৪ জন।

কালেক্টরেট স্কুল

কালেক্টরেট স্কুল থেকে বৃত্তি পেয়েছে ৫ শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ট্যালেন্টপুলে ৪ জন ও সাধারণ গ্রেডে ১ জন।

কেশবপুরের আল আমিন মডেল একাডেমি

কেশবপুরে আল আমিন মডেল একাডেমি থেকে শতভাগ প্রাথমিক বৃত্তি পেয়েছে। বৃত্তিপ্রাপ্তদের ফুলের শুভেচ্ছা দিয়েছে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

২০২২ সালে ৫ম শ্রেণির প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষায় কেশবপুরে আল আমিন মডেল একাডেমি থেকে ১২ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে ৯ জন ট্যালেন্টপুলে ও ৩ জন সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি পেয়েছে।

এদিকে কেশবপুরে আল আমিন মডেল একাডেমি থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে বৃত্তিপ্রাপ্ত ১২ শিক্ষার্থীকে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান করা হয়। বিকেলে বিদ্যালয়ে ওই শিক্ষার্থীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানানোসহ মিষ্টিমুখও করানো হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানের সভাপতি সহকারী অধ্যাপক মশিউর রহমান, নির্বাহী পরিচালক আব্দুল গফুর গাজী, প্রধান শিক্ষক সুমন দাস, শিক্ষক সাহা বৈদ্যনাথ, চারুপীঠ আর্ট স্কুলের পরিচালক উৎপল দে প্রমুখ।