যশোরের লাল বাংলাদেশের উদীয়মান ফুটবল তারকা

এখন সময়: শুক্রবার, ১৯ জুলাই , ২০২৪, ০৮:১৪:৫৫ পিএম

ক্রীড়া প্রতিবেদক : যশোরের পুরাতন কসবা কাজীপাড়ার সানোয়ার হোসেন (ডাক নাম-লাল) একজন তরুণ প্রতিভাবান ফুটবলার। ২০০৩ সালে জন্মগ্রহণ করা লাল তার ১২ বছরের খেলোয়াড় জীবনে ইতিমধ্যেই বাংলাদেশ ফুটবলে বেশ পরিচিতি অর্জন করেছেন। সানোয়ার হোসেন লাল তার ফুটবল জীবনের সূচনা হয় ঢাকা উত্তরা ফ্রেন্স ক্লাবের পাইনিওর লীগে। এরপর তিনি ঢাকা স্টান ক্লাবে সেকেন্ড ডিভিশন এবং পিডবিøউডি দলে ঢাকা ফাস্ট ডিভিশনে খেলেন। ২০১৭-২০১৮ সালে তিনি বসুন্ধরা কিংসের হয়ে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন লীগে অংশগ্রহণ করেন। ২০১৮-২০১৯ সালে তিনি বসুন্ধরা কিংসের হয়ে প্রফেশনাল লীগে যাত্রা শুরু করেন এবং একই মৌসুমে প্রফেশনাল লীগ ও স্বাধীনতা কাপের চ্যাম্পিয়ন হন। ২০২০-২০২১ সালে তিনি রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্স সোসাইটিতে খেলেন। ২০২২-২০২৩ সালে তিনি মোহামেডান স্পটিং ক্লাবে খেলেন। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে, লাল ২০২৩ সালে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২১ দলের হয়ে বাহারাইন সফরে যান। সেখানে তিনি বাহারাইন, কাতার, ভ‚টান ও নেপালের বিপক্ষে লাল সবুজের জার্সি  গায়ে প্রতিটি ম্যাচে অংশগ্রহণ করেন। লাল তার খেলার জন্য বেশ কিছু পুরস্কার ও সম্মাননা অর্জন করেছেন। তিনি ২০১৯ সালে বসুন্ধরা কিংসের হয়ে প্রফেশনাল লীগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য সেরা তরুণ খেলোয়াড়ের পুরস্কার লাভ করেন। তিনি ২০২২ সালে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে ফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার লাভ করেন। লাল একজন প্রতিভাবান মিডফিল্ডার। তিনি তার দলের জন্য সৃজনশীল খেলা ও গোল করার ক্ষমতার জন্য পরিচিত। তিনি একজন দক্ষ পাসিং মেকার এবং তার শট নিয়ে খুবই নিখুঁত। লাল বাংলাদেশ ফুটবলের ভবিষ্যৎ। তিনি একজন প্রতিভাবান খেলোয়াড় যিনি দেশের জন্য বড় কিছু করতে আশাবাদী। লালের স্মরণীয় ম্যাচ, লালের কাছে তার স্মরণীয় ম্যাচ হল ২০১৯ সালের বসুন্ধরা কিংস ও বাংলাদেশ পুলিশ এফসি ম্যাচ। এই ম্যাচে বসুন্ধরা কিংস ৪-০ গোলে জয়লাভ করে। লাল এই ম্যাচে একটি গোল করেন এবং তার দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা পালন করেন। লাল তার লক্ষ্য সম্পর্কে বলেন, “আমি একজন পেশাদার ফুটবলার হতে চাই। আমি আমার দেশের জন্য খেলতে চাই এবং বিশ্বকাপে খেলতে চাই।”লালের সাফল্য বাংলাদেশ ফুটবলের জন্য একটি আশার আলো। তিনি একজন প্রতিভাবান খেলোয়াড় যিনি দেশের জন্য বড় কিছু করতে পারেন।